পর্যটক বোঝাই বাসের সঙ্গে পিক আপ ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে মৃত্যু হল বাসের খালাসির। আহত হয়েছেন আরও ১২ জন বাসযাত্রী। সোমবার ভোরে মারিশদা থানার খড়িপুকুরিয়াতে দিঘা-কলকাতা সড়কে দুর্ঘটনাটি ঘটে। মৃতের নাম শেখ সফিউল (৩২)। তাঁর বাড়ি কলকাতার রাজারহাটে। দুর্ঘটনায় আহত শেখ সফিউল-সহ ১২ জনকে প্রথমে স্থানীয় খড়িপুরিয়া হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালের চিকিৎসকরা শেখ সফিউলকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। আহতদের মধ্যে কয়েক জনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাঁদের সকলকে পরে কলকাতার নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, সোমবার ভোরে বাসটি  দিঘা থেকে কলকাতায় ফিরছিল। পথে খড়িপুকুরিয়ার কাছে উল্টো দিক থেকে আসা সব্জিবোঝাই পিক আপ ভ্যানের সঙ্গে বাসটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, কুয়াশার কারণেই দুর্ঘটনাটি ঘটে থাকতে পারে। মারিশদা থানার পুলিশ বাসটিকে আটক করেছে। তবে বাস ও পিক আপ ভ্যানের চালক পলাতক। শেখ সফিউলের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।