Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৮ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

ঝাড়খণ্ডের নতুন মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন রঘুবর দাস

সংবাদ সংস্থা
২৬ ডিসেম্বর ২০১৪ ১৫:৫১
ঝাড়খণ্ডের নতুন মুখ্যমন্ত্রী রঘুবর। ছবি: পিটিআই।

ঝাড়খণ্ডের নতুন মুখ্যমন্ত্রী রঘুবর। ছবি: পিটিআই।

শেষ পর্যন্ত অনুপজাতীয় মুখ্যমন্ত্রীই পেতে চলেছে ঝাড়খণ্ড। পূর্ব ভারতের এই রাজ্যের দশম মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিতে চলেছেন বিজেপির রঘুবর দাস। শুক্রবার বিজেপির বিধায়ক দলের বৈঠকে রঘুবরকে বিধানসভার পরিষদীয় দলের নেতা নির্বাচন করা হয়। বৈঠকের পরে রাজ্যে দলের পর্যবেক্ষক জে পি নাড্ডা রঘুবরের নাম ঘোষণা করেন। তাঁর নাম প্রস্তাব করেন রাজ্যের আর এক হেভিওয়েট নেতা তথা মুখ্যমন্ত্রী পদের অন্যতম দাবিদার সরযু রাই। এ বারের নির্বাচনে ৮২টি আসনের মধ্যে ৪১টি আসন জেতে বিজেপি-আজসু জোট। এ দিন বিকেলে রাজ্যপাল সৈয়দ আহমদের সঙ্গে দেখা করে সরকার গঠনের দাবি জানাবেন রঘুবর। আগামী সোমবার শপথ নেবে নতুন মন্ত্রিসভা।

পাঁচ বারের বিধায়ক রঘুবর ঝাড়খণ্ডে বিজেপির তৃতীয় মুখ্যমন্ত্রী। এর আগে বিজেপির বাবুলাল মারান্ডি এবং অর্জুন মুন্ডা মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন। পরে অবশ্য বিজেপি থেকে বেরিয়ে নিজের দল তৈরি করেছিলেন বাবুলাল। তাঁর দল ঝাড়খণ্ড বিকাশ মোর্চা এই নির্বাচনে আটটি আসন জিতলেও প্রাক্তন এই মুখ্যমন্ত্রী হেরেছেন গিরিডি এবং ধানওয়ার— দুই কেন্দ্র থেকেই। অটলবিহারী বাজপেয়ী এবং জয়প্রকাশ নারায়ণের শিষ্য রঘুবর জন্মসূত্রে ছত্তীসগঢ়ের বাসিন্দা। ১৯৭৪ সালে ছাত্র আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন রঘুবর। ২০০৯-’১০ সালে শিবু সোরেন মন্ত্রিসভায় উপ মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন তিনি। বিজ্ঞান ও কলা বিভাগের স্নাতক রঘুবর ১৯৯৫ সাল থেকে লড়ছেন জামশেদপুর (পূর্ব) কেন্দ্র থেকে। এনডিএ সরকারের আমলে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও হয়েছিলেন তিনি। ২০০৯ সালে তাঁর বিরুদ্ধে একটি জনস্বার্থ মামলা হয়েছিল।

বিধায়ক দলের বৈঠকের আগেই রাজ্য নেতাদের একটি অংশ বলতে শুরু করেন যে, মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে সঙ্ঘ-ঘনিষ্ঠ রঘুবর দাসের নাম এক রকম চূড়ান্তই করে ফেলেছেন দিল্লির নেতারা। রাজ্য বিজেপিতে মুন্ডার বিপরীত মেরুর নেতা রঘুবর। মুন্ডার সাহায্য চাইতে রাঁচির জেল মোড়ে তাঁর বাড়িও গিয়েছিলেন রঘুবর। এর পরেই সম্ভাব্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে রঘুবরের নাম ঘিরে জল্পনা আরও জোরদার হয়। এ দিন তাতে শিলমোহর পড়ল মাত্র।

Advertisement

বৈঠকের পর সাংবাদিদের মুখোমুখি হয়ে রাজ্যের সম্ভাব্য নতুন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “রাজ্যবাসীকে দুর্নীতি মুক্ত স্বচ্ছ প্রশাসন উপহার দেবে নতুন সরকার। গরিব এবং পিছিয়ে পড়া মানুষদের উন্নতির জন্য কাজ করব আমরা।”

নতুন মুখ্যমন্ত্রীর হাত ধরে আপাতত নতুন দিনের খোঁজে ঝাড়খণ্ড।

আরও পড়ুন

Advertisement