×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৯ জুলাই ২০২১ ই-পেপার

মিনাখাঁয় তৃণমূল কর্মী খুন

নিজস্ব সংবাদদাতা
০২ অগস্ট ২০১৪ ১৩:৪৩

উত্তর ২৪ পরগনার মিনাখাঁয় এক তৃণমূল কর্মীকে খুন করে পালাল কয়েক জন দুষ্কৃতী। শুক্রবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে মিনাখাঁ ব্লকের দক্ষিণ বরগা গ্রামে। পুলিশ জানায়, মৃতের নাম শাজাহান গাজি (২৭)। তাঁকে বাঁচাতে গিয়ে আহত তাঁর স্ত্রী সাকিয়া বিবি ও এক আত্মীয় নুরউদ্দীন গাজি। দু’জনকেই গুরুতর জখম অবস্থায় কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এই খুনের পিছনে সিপিএম আশ্রিত দুষ্কৃতীদের হাত রয়েছে বলে অভিযোগ তৃণমূলের।

ঠিক কী ঘঠেছিল ওই দিন?

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, শুক্রবার রাতে বাড়িতে ঢুকে শাজাহান গাজি ও তাঁর পরিবারের উপর চড়াও হয় এক দল দুষ্কৃতী। সেই সময় তাঁরা একসঙ্গে খেতে বসেছিলেন। দরজা ভেঙে ঢুকেই এলোপাথাড়ি গুলি ছুড়তে শুরু করে তারা। শাজাহানকে বাড়ির বাইরে বার করে এনে হাত-পা বেঁধে কোপানো শুরু হয়। এর পরে মৃত্যু নিশ্চিত করতে বেশ কিছু ক্ষণ তাঁকে পুকুরের জলে ডুবিয়ে রাখে দুষ্কৃতীরা। তাঁকে বাঁচাতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হন তাঁর স্ত্রী ও এক আত্মীয়। এর পরে গোটা এলাকায় বোমাবাজি করতে করতে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা।

Advertisement

এলাকার বাসিন্দারা জানান, এই ঘটনার বেশ কিছুদিন আগে গাঁজা-সহ এক স্থানীয় দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। ওই দুষ্কৃতীর বিরুদ্ধে সাক্ষী দিয়েছিল শাজাহান। এর পর থেকেই হুমকি দেওয়া হচ্ছিল তাঁকে। সেই আক্রোশ থেকেই এই খুন বলে প্রাথমিক তদন্তে মনে করছে পুলিশ। পুলিশের এক আধিকারিকের কথায়, স্থানীয় দুষ্কৃতী খালেদ মোল্লা-সহ আট জনের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ রয়েছে।

এলাকার তৃণমূল বিধায়ক ঊষারানি মণ্ডল বলেন, “শাজাহান আমাদের সক্রিয় কর্মী ছিলেন। গত বার পঞ্চায়েত নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাও করেছিলেন তিনি। সিপিএম আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই তাঁকে খুন করেছে।” তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে সিপিএম।

Advertisement