×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১২ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

গল্প পেলেই ফিরবে ‘সিলসিলা’ জুটি

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ০৮ জানুয়ারি ২০১৫ ০২:২০
‘সিলসিলা’ ছবির দৃশ্য

‘সিলসিলা’ ছবির দৃশ্য

প্রথম জুটি বেঁধেছিলেন ‘দো আনজানে’ ছবিতে। আর এক ফ্রেমে তাঁরা শেষ বার দেখা দিয়েছিলেন যশ চোপড়ার ‘সিলসিলা’য়। বাস্তবে এখন তাঁরা আক্ষরিক অর্থেই ‘দো আনজানে’। তা সত্ত্বেও তাঁদের ফের জুটি বাঁধার জল্পনার ‘সিলসিলা’ শেষ হয়েও হচ্ছে না শেষ!

নতুন ছবি ‘শামিতাভে’র মুক্তির আগে আজ, রেখার সঙ্গে এক ফ্রেমে দেখা দেওয়ার জল্পনা আরও এক বার উস্কে দিলেন অমিতাভ বচ্চন। জানালেন, ভাল চিত্রনাট্য পেলে ভবিষ্যতে রেখার সঙ্গে কাজ করতে কোনও আপত্তি নেই তাঁর। প্রসঙ্গত, আর বাল্কি পরিচালিত ‘শামিতাভ’ ছবিতে অমিতাভের সঙ্গে দেখা যাবে রেখাকেও। তবে ফ্যানদের যাবতীয় জল্পনায় জল ঢেলে অমিতাভ নিজেই জানিয়ে দিয়েছিলেন, এ বারেও এক ফ্রেমে অমিতাভ-রেখার দেখা পাবেন না দর্শককুল। যদিও আজ মুম্বইয়ে ছবির ট্রেলার মুক্তির অনুষ্ঠানে অমিতাভ বলেন, “বাল্কি আমাকে বার বার বলছেন, আমাদের দু’জনকে নিয়ে তিনি একটি ছবি বানাতে চান। দেখা যাক, কোনও ভাল গল্প পাওয়া গেলে কেন নয়?”

যদিও এই প্রথম বার নয়, বছর দুই আগেও প্রবাদপ্রতিম এই দুই তারকার একসঙ্গে কাজ করা নিয়ে জল্পনা দানা বেঁধেছে। ২০১২-র এপ্রিলে রেখার সঙ্গে অভিনয় করতে আপত্তি নেই বলে জানিয়েছিলেন অমিতাভ। তবে বাস্তবে তা হয়নি। গত বছর অগস্টেও শোনা গিয়েছিল, একটি ছবির সিক্যুয়েলে কাজ করতে রাজি হয়েছেন তাঁরা। তবে অনতিবিলম্বে সেই গুজবেও দাঁড়ি পড়ে যায়। একসঙ্গে কাজ তো দূর অস্ত, বরং ‘সিলসিলা’র পরবর্তী দু’দশক সসম্মানে একে অপরকে এড়িয়ে চলেছেন তাঁরা। বিভিন্ন পার্টি এবং অনুষ্ঠানে চোখে পড়েছে অমিতাভ-জায়া জয়া বচ্চন এবং রেখার শীতল দূরত্বও। রাজ্যসভায় দুই সদস্য রেখা এবং জয়ার মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনার প্রসঙ্গ নিয়েও বিস্তর জলঘোলা হয়েছে। এমনকী, রাজ্যসভায় জয়া ঢুকলেই টিভির পর্দায় রেখার ছবি ভেসে ওঠা নিয়ে একচোট ক্ষোভপ্রকাশও করেন জয়া। তবে কিংবদন্তি দুই তারকার বছর তিরিশের এই দূরত্বে এক বারের জন্যও একে অপরের প্রতি কোনও অশ্রদ্ধা প্রকাশ পায়নি। জল্পনা হয়েছে, ভেস্তেও গিয়েছে। সিনেমার পর্দায় একসঙ্গে দেখা যায়নি অমিতাভ-রেখাকে।

Advertisement

তবে অমিতাভ-রেখা-জয়ার সম্পর্কের বরফ যে গলতে শুরু করেছে তা বোঝা যায় ২০১৪ সালের একাধিক ঘটনায়। সে বছরই প্রথম প্রকাশ্যে মুখোমুখি হন জয়া এবং রেখা। সৌজন্যে ভাটা তো পড়েইনি, উল্টে হাসিমুখে একে অপরকে জড়িয়ে ধরেছেন। হয়েছে কুশল বিনিময়। সেই অনুষ্ঠানেই বছর তিরিশ পরে প্রথম ক্যামেরাবন্দি হন অমিতাভ-রেখা। একে অপরকে হাসিমুখে নমস্কার-প্রতি নমস্কারও করেন। তবে সেই অনুষ্ঠানেই পুরস্কার নিতে যাওয়ার সময় স্ত্রী জয়াকে প্রথম বার সর্বসমক্ষে চুমু খান বর্ষীয়ান অভিনেতা। সে বছরই একটি উড়ানে অমিতাভের সঙ্গে এক পাইলটের তোলা সেলফিতে এক ঝলক দেখা যায় রেখাকে। দেখা যায়, অমিতাভের পিছনের আসনে, ক্যামেরার উল্টো দিকে তাকিয়ে খানিক জবুথবু হয়ে বসে আছেন রেখা। ফের ভক্তকুলের জল্পনা তুঙ্গে ওঠে। জল্পনার পারদ চড়ে যখন একটি জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শোয়ে এসে ফিল্মি সংলাপের মোড়কে বিগ বি-র নাম করেন রেখা!

তবে ভক্তকূলের স্বপ্ন সত্যি হয়নি। ‘শামিতাভে’র আগে ‘ওম শান্তি ওম’ ছবির একটি ক্যামিওর দৃশ্যে আলাদা আলাদা ভাবে অমিতাভ-রেখাকে দেখা গেলেও তাঁরা একসঙ্গে ফ্রেমবন্দি হননি। ইন্ডাস্ট্রির বেশিরভাগ মানুষ যদিও মনে করেন, এ সব নেহাতই কথার কথা। অমিতাভ-রেখার জুটি বাঁধা অসম্ভব। তবে ভক্তরা মোটেই সে সবের ধার ধারছেন না। তাঁদের বিশ্বাস, শাহেনশা যখন বলেই দিয়েছেন, তখন ফের সিলসিলা-দর্শন হতেই পারে!

Advertisement