×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১২ জুন ২০২১ ই-পেপার

নির্জন তাকদায় শ্যুটিং পাওলির

রেজা প্রধান
দার্জিলিং ১৫ অক্টোবর ২০১৪ ০০:৫০
শ্যুটিংয়ের ফাঁকে হঠাত্‌ একা। তাকদায় রবিন রাইয়ের তোলা ছবি।

শ্যুটিংয়ের ফাঁকে হঠাত্‌ একা। তাকদায় রবিন রাইয়ের তোলা ছবি।

কুয়াশা চিরে পাকদন্ডি রাস্তা ধরে নেমে আসা গাড়িটিতে হেলান দিয়ে বসে এক মহিলা। তাঁর চোখেমুখে অসুস্থতার ছাপ স্পষ্ট। তাঁকে ধরে রয়েছেন এক যুবতী। গাড়িটি এগিয়ে চলেছে হাসপাতালের দিকে। কিছুক্ষণের মধ্যেই পথ চলতি কয়েকজন গাড়ির ভিতরে থাকা দুই মহিলাকে চিনেও ফেললেন। হঠাত্‌ই রাস্তার বাঁকের আড়ালে দাঁড়িয়ে থাকা কেউ ‘কাট’ বলে চিত্‌কার করে ওঠায় গাড়িটি থেমে যায়। ক্যামেরা, আয়না নানা সরঞ্জাম নিয়ে একদল লোক রাস্তার বাঁক থেকে ইঠে আসেন। ততক্ষণে পথচলতি সকলেই শ্যুটিঙের বিষয়টি টের পেয়ে গিয়েছেন। রূপা গঙ্গোপাধ্যায় এবং পাওলি দাম দু’জনেই গাড়ি থেকে নেমে হাসি মুখে এদিয়ে গেলেন পরিচালক দেবেশ চট্টোপাধ্যায়ের দিকে।

গত রবিবার এবং সোমবার দেবেশবাবুর প্রথম সিনেমা ‘নাটকের মতো’র শ্যুটিং হয়ে গেল দার্জিলিঙের তাকদায়। দার্জিলিং থেকে ২১ কিলোমিটার দূরে তুলনামুলক নির্জন তাগদায় গোটা ইউনিট নিয়ে নির্বিঘ্নেই শ্যুটিং সেরেছেন বলে দেবেশবাবু জানিয়েছেন। সিনেমায় রূপার মেয়ের চরিত্রে রয়েছে পাওলি। সোমবার শ্যুটিং হওয়া দৃশ্যে অসুস্থ মাকে হাসপাতাল নিয়ে যাওয়ার দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করা হয়েছে। শ্যুটিং করতে এসে নতুন করে দার্জিলিংকে ভালবেসে ফেলেছেন বলে দাবি করেছেন পরিচালক। তাঁর কথায়, “আগেরবার দার্জিলিঙে এসেই তাকদার কথা শুনেছিলাম। জায়গাটা দেখেই পছন্দ হয়ে যায়। দার্জিলিঙে এর আগে অনেক ছবির শ্যুটিং হলেও, যতদূর শুনেছি তাকদায় হয়নি। সে অর্থে আমাদের সিনেমাতেই তাকদাকে প্রথম দেখা যাবে।”

জনপ্রিয় নাটক ‘ফ্যাতাড়ু’, ‘ফন্দিগ্রামের’ পরিচালক দেবেশ দাবি করেছেন, এরপরেও কোনও সিনেমার শ্যুটিঙের জন্য প্রথমেই দার্জিলিংকে বেছে নেবেন। গত দু’দিন দেবেশবাবুর ক্যামেরা কাঞ্চনজঙ্ঘার চূড়া থেকে পাহাড়ের ঢালে চা বাগানের অজস্র ছবি তুলে নিয়েছে। তাঁর সংযোজন, “তাকদার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে আমি তো মুগ্ধ। এরপরে শ্যুটিঙের প্রয়োজন হলে দেশের অন্য কোথায় যাওয়ার আগে দার্জিলিঙের কথাই প্রথমে ভাবব।” পাহাড় ভালবাসার কথা জানিয়েছেন অভিনেত্রী পাওলি দামও। ঘটনাচক্রে তাঁর নাম-ও পাহাড়ের একটি চূড়ার নামে। তিনি বলেন, “পাহাড়ে সঙ্গে আমার সম্পর্ক অনেকদিনের। আমার বাবা মাঝ্যেমধ্যেই পাহাড়ে ট্রেক করতে যেতেন। এর আগেও দার্জিলিঙে বেশ কয়েকটি সিনেমার শ্যুটিং করেছি। অক্টোবরের শুরুতেই কুয়াশা ঘেরা এমন আবহাওয়া, কলকাতায় বসে ভাবাই যায় না।”

Advertisement

নাট্য ব্যক্তিত কেয়া চক্রবর্তীর জীবনকে কেন্দ্র করেই ‘নাটকের মতো’ সিনেমাটি তৈরি হচ্ছে বলে পরিচালক জানিয়েছেন। শ্যুটিংও প্রায় শেষ পর্যায়ে বলে জানানো হয়েছে। তাগদা ছাড়াও তিনচুলে, কালবাঙে শ্যুটিং হয়েছে।

দার্জিলিঙে শ্যুটিং অবশ্য নতুন কোনও ঘটনা নয়। ষাটের দশকের শেষে রাজেন্দ্র কুমার অভিনীত ‘ঝুক গয়া আসমান’, রাজেশ খান্নার ‘আরাধনা’ অন্যতম উল্লেখযোগ্য। পরবর্তীতে ‘রাজু বন গয়া জেন্টালম্যান থেকে,’ হালফিলের ‘ম্যায় হু না’, ‘বরফি’, ‘ইয়ারিঁয়া’ ছবিতেও দার্জিলিঙের একাধিক দৃশ্য রয়েছে।

Advertisement