Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

স্ট্যাম্পে ঋতু

টলিউডে নতুন ট্রেন্ড শুরু করলেন নায়িকা। খোঁজ নিলেন অরিজিৎ চক্রবর্তী।দীপিকা পাড়ুকোনকে দেখলেই বেড়ে যায় আপনার হার্ট বিট। কিংবা শাহরুখ খানের নাম

১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৪ ০০:০০
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

দীপিকা পাড়ুকোনকে দেখলেই বেড়ে যায় আপনার হার্ট বিট। কিংবা শাহরুখ খানের নাম শুনলেই হাল্কা লাগে পা দু’টো।

রাতদিন ট্যুইটারে ফলো করা। আর ছবি রিলিজের দিন ছবিতে মালা। ফ্যান হলে এগুলো হবেই।

তবে এ বার শুরু হয়েছে নতুন ট্রেন্ড। তারকাদের ছবিওয়ালা স্ট্যাম্প।

Advertisement

ইন্ডিয়া পোস্ট থেকেই প্রকাশ করা। এই ডাকটিকিট সেঁটে পাঠানো যাবে চিঠিও। তবে চাইলেই এই স্ট্যাম্প ডাকঘরের কাউন্টারে পাবেন না। প্রথমেই অর্ডার দিতে হবে।

টলিউড সেলিব্রিটিদের মধ্যে এই রকম স্ট্যাম্প ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত-র প্রথম। এক ফ্যান ক্লাব করিয়েছে এই স্ট্যাম্প। নতুন এই ট্রেন্ডের ব্যাপারে কী বলছেন তিনি? “অনেক কিছুই প্রথমবার করেছি টলিউডে। এই কিছু দিন আগে দেহদান করলাম। এবার ফ্যানরা এই স্ট্যাম্পটা প্রকাশ করছে। আমার মনে হয় ভবিষ্যতে এই ট্রেন্ডটা অন্যরাও ফলো করবে,” বললেন ঋতুপর্ণা। তাঁর ফ্যানরা না হয় তাঁদের প্রিয় নায়িকাকে নিয়ে স্ট্যাম্প বানালো। তিনি নিজে? কার স্ট্যাম্প বানাতেন? উত্তর দিলেন, “মাধুরী দীক্ষিত। এখনও এত কিছু করছেন যা দেখে অনুপ্রাণিত হই।”



ডাকটিকিটে ঋতুপর্ণা

কিন্তু তারকার অপছন্দের কোনও ছবি যদি বের করে কোনও ফ্যান? সচেতন তারকা তো তা মেনে নেবেন না। “কারও ছবি ‘মাই স্ট্যাম্প’য়ে পেতে হলে তার ফোটো আইডেন্টিটি কার্ড দরকার। তবে ফ্যানরা কোনও তারকার ছবি স্ট্যাম্পে চাইলে সেই তারকার অথরাইজেশন লেটার হলেও চলবে। কোনও ব্যক্তি বা সম্প্রদায়কে আঘাত না-করলে সে ছবি স্ট্যাম্পে ছাপাতে অসুবিধা নেই,” জানালেন বেঙ্গল সার্কেলের লিয়াঁজো অফিসার দেবাশিস কুমার সুর।

আর ফ্যানরা কী বলছেন? “আমরা ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর ডাকটিকিট বানিয়েছি। ঋতুপর্ণার ১০টা পাতা নিয়েছি। আজ সেটা তুলে দেব ঋতুপর্ণার হাতে। আমরা শাহরুখের স্ট্যাম্প করারও পরিকল্পনা করেছি। সেগুলো ২ নভেম্বর ওঁর জন্মদিনে তুলে দেব,” বলছিলেন শাহরুখ ফ্যান ক্লাবের সেক্রেটারি অর্ণব রায়।

তবে ডাকটিকিটে মুখ দেখাতে হলে সেলিব্রিটিই হতে হবে, তেমনটা কিন্তু নয়। আমি, আপনি যে কেউই বানিয়ে নিতে পারেন নিজের ছবিওয়ালা ডাকটিকিট। দরকার একটা ছবি আর তিনশ টাকা। ব্যস, তা হলেই ১২টা স্ট্যাম্পের একটা পাতা পেয়ে যাবেন আপনি। তবে হ্যাঁ, যার ছবিওয়ালা ডাকটিকিট করতে চাইছেন, তাকে জীবিত থাকতে হবে আর কোনও ক্রিমিনাল কেস থাকা চলবে না।

আর কী? যাবেন নাকি একবার জিপিও-র দিকে?

আনাচে কানাচে

কিস্-তি-মাত: শাহরুখ-দীপিকা। ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’য়ের মিউজিক লঞ্চে।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement