Advertisement
০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

খাসি রাজাকে নিয়ে অ্যানিমেশন ছবি

খাসি স্বাধীনতা সংগ্রামী ইউ টিরট সিংহের জীবন-কাহিনি নিয়ে তৈরি হল অ্যানিমেশন সিনেমা ‘ইউ সিয়েম’। বাংলায় তার অর্থ রাজা। কয়েক জন তরুণ চিত্রনির্মাতা সেটি তৈরি করেছেন। এক ঘণ্টার ছবিটি মুক্তি পাবে আগামী ৪ মার্চ। সিনেমার লেখক ও পরিচালক বান ক্যাসপার মাওলং বলেন, “ইউ সিয়েম কম্পিউটার গ্রাফিক্সে তৈরি অ্যানিমেশন সিনেমা। ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির বিরুদ্ধে ইউ টিরট সিংহের লড়াইয়ের গল্প তাতে দেখানো হবে”

রাজীবাক্ষ রক্ষিত
গুয়াহাটি শেষ আপডেট: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ ০৩:১৩
Share: Save:

খাসি স্বাধীনতা সংগ্রামী ইউ টিরট সিংহের জীবন-কাহিনি নিয়ে তৈরি হল অ্যানিমেশন সিনেমা ‘ইউ সিয়েম’। বাংলায় তার অর্থ রাজা। কয়েক জন তরুণ চিত্রনির্মাতা সেটি তৈরি করেছেন। এক ঘণ্টার ছবিটি মুক্তি পাবে আগামী ৪ মার্চ।

Advertisement

সিনেমার লেখক ও পরিচালক বান ক্যাসপার মাওলং বলেন, “ইউ সিয়েম কম্পিউটার গ্রাফিক্সে তৈরি অ্যানিমেশন সিনেমা। ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির বিরুদ্ধে ইউ টিরট সিংহের লড়াইয়ের গল্প তাতে দেখানো হবে”

ইতিহাস বলে, ১৮২৯ সালে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি বিতর্কিত চুক্তি করে মেঘালয়ে শোষণ শুরু করে। প্রতিবাদ করেন রাজা টিরট। ওই বছর ৪ এপ্রিল টিরটের বাহিনী দু’জন ইংরেজ অফিসারকে হত্যা করে। তার জেরে খাসিদের সঙ্গে যুদ্ধ শুরু হয় ইংরেজদের। এক পক্ষে ছিল বন্দুকধারী প্রশিক্ষিত ইংরেজ সেনাবাহিনী।

অন্য দিকে তলোয়ার, তীর-ধনুক হাতে উপজাতি রাজার অশিক্ষিত সেনা। সম্মুখ সমরে ইংরেজদের পরাজিত করা অসম্ভব বুঝে গেরিলা যুদ্ধের ছক কষেন টিরট। পাহাড়-জঙ্গলে লুকিয়ে থাকা খাসি বাহিনীকে কাবু করতে ইংরেজদের প্রায় ৪ বছর লাগে। টিরট গুলিবিদ্ধ হন। যে গ্রাম প্রধান জখম টিরটকে লুকিয়ে থাকার ব্যবস্থা করেছিল, সে-ই স্বর্ণমুদ্রার লোভে তাঁকে ইংরেজদের হাতে ধরিয়ে দেয়। টিরটকে বন্দি করে ঢাকা পাঠানো হয়। সেখানে ১৮৩৫ সালে তাঁর মৃত্যু হয়।

Advertisement

টিরটের মৃতুদিন ১৭ জুলাই মেঘালয়ে ছুটির দিন হলেও, সেখানকার বর্তমান প্রজন্ম তাঁর বীরত্বের কথা ভুলতে বসেছে। পরিচালক বলেন, “দেশ ও বিদেশের দর্শক যাতে টিরটের কথা জানতে পারেন, সে জন ওই অ্যানিমেশন ছবিটি ইংরেজিতেও ডাব করা হয়েছে।” তবে, আপাতত বাণিজ্যিক ভাবে বড় পর্দায় ছবিটি মুক্তি পাবে না। পরিচালক জানান, তাঁরা পরে সেন্সর বোর্ডে ছবিটির অনুমোদনের জন্য আবেদন জানাবেন। আপাতত রাজ্যের বিভিন্ন স্কুলে সেটি দেখানো হবে। প্রত্যন্ত এলাকার কিশোরদের কাছেও টিরটের কাহিনী পৌঁছে দিতে চান চিত্রনির্মাতারা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.