×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৬ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

রাস্তার উপরেই প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে হয়েছে আলিয়াকে!

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৮ জুলাই ২০১৭ ১৮:৪৯
আলিয়া ভট্ট।— ফাইল চিত্র।

আলিয়া ভট্ট।— ফাইল চিত্র।

ঠিকই পড়ছেন হেডলাইনটা। হ্যাঁ, রাস্তাতেই।

না! ছোটবেলায় নয়। বরং নায়িকা হওয়ার পরেই এ কাজ করেছেন তিনি। করেছেন এক রকম বাধ্য হয়েই। এ কথা নিজেই স্বীকার করেছেন আলিয়া ভট্ট।

কী এমন হয়েছিল, যে নায়িকা রাস্তায় ‘প্রস্রাব’ করতে বাধ্য হন? সম্প্রতি এক সাক্ষাত্কারে আলিয়া শেয়ার করেছেন সে ঘটনার কথা।

Advertisement

আরও পড়ুন, ‘জগ্গা জসুস’ বনাম ‘শব’, জিতবে কে? কী বলছে গুগল?

সে সময় ইমতিয়াজ আলির পরিচালনায় ‘হাইওয়ে’ ছবির শুটিং করছিলেন আলিয়া। একটা ট্রাকে করে ঘুরে ঘুরে শুটিং করতে হয়েছিল। আগে থেকে লোকেশন তেমন ঠিক ছিল না। ঘুরতে ঘুরতে জায়গা আর আলো পছন্দ হলেই নাকি শুটিং শুরু করে দিতেন ইমতিয়াজ! সে সময় অনেক প্রত্যন্ত জায়গায় আলিয়াকে যেতে হয়েছিল ছবির তাগিদেই। সব জায়গায় প্রয়োজন মতো টয়লেট না পাওয়ায় রাস্তাতেই কাজ সারতে বাধ্য হয়েছিলেন নায়িকা!

আলিয়ার এই মন্তব্য শুনে বি-টাউনের একটা বড় অংশ মনে করছে, ডেডিকেশন বোধহয় একেই বলে। নায়িকাসুলভ কোনও আচরণ না করে ভাল কাজের খাতিরে সমস্ত পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিয়েছিলেন মহেশ-কন্যা। তা ছাড়াও ভারতে শৌচাগারের যে সমস্যা, আর তাতে মহিলারা কতটা ভুক্তভোগী তা যেন আরও একবার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিলেন আলিয়া।

Advertisement