Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৬ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

সেলফিতে সাবধান

২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫ ০০:১৫
‘বুল রান’-এ ষাঁড়ের তাড়া। সেলফি-অ্যাডিক্ট কিন্তু নিশ্চিন্ত।

‘বুল রান’-এ ষাঁড়ের তাড়া। সেলফি-অ্যাডিক্ট কিন্তু নিশ্চিন্ত।

নিজের আইফোনে দিনে ১০ ঘণ্টারও বেশি সময় নিয়ে প্রায় ২০০-টা সেলফি তুলতেন লন্ডনের স্কুলপড়ুয়া ড্যানি বাওম্যান। কোনওটাই ‘পারফেক্ট’ হচ্ছে না। স্কুল যাওয়া বন্ধ, বাড়ির বাইরে বেরনো বন্ধ, বাবা-মা থামাতে গেলে তাঁদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার।

শেষে আত্মহত্যার চেষ্টা। স্বাভাবিক জীবনে ফেরার তাগিদে যুদ্ধ।

ম্যাঙ্গালোরের বছর উনিশের বর্ষা আলভা। ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের হস্টেলে ফেরার সময় রেলের ট্র্যাক ধরে হাঁটতে হাঁটতে সেলফি তুলতে গিয়ে বর্ষা টের পাননি ম্যাঙ্গালোর প্যাসেঞ্জার তাঁর ঘাড়ের কাছে নিশ্বাস ফেলছে। অন্ধ্রপ্রদেশের বছর বাইশের সন্তোষ কুমারও ভাবতে পারেননি ট্রেনের ছাদে চড়ে সেলফি তুলতে গিয়ে ২৫ হাজার ভোল্টের ছ্যাঁকা খেতে হবে তাঁকে।

Advertisement

সেলফিতে চোখ রাখব না...

হুহু করে বিকোতে থাকা স্মার্টফোনের ক্যামেরায় সেলফিবন্দি হয়ে সবাই এখন পৌঁছতে ব্যস্ত প্রিয়জনেদের মুঠোতে। নিষিদ্ধ পরকীয়ার স্বাদ পেতে।

কিন্তু এমন কী আছে যা সেলফি এসে বদলে দিল মুহূর্তের মধ্যে?

মডেলিং-এ আগ্রহী বছর চব্বিশের সাগ্নিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাসটাইম হল সেলফি তোলা। তাঁর টোনড শরীরের ছবি বান্ধবীদের স্মার্টফোন ছাড়াও পৌঁছে যায় মডেলিং এজেন্সির কাছেও। নিজেকে খুব সুন্দর দেখায়? নাকি নতুন বান্ধবী পাওয়া যায়? ‘‘হ্যাঁ, প্রচুর প্রশংসা পাই। তবে আমি নিজের মতো সেলফি তোলার চেষ্টা করি। নকল করে নয়। তবে রেলওয়ে ট্র্যাকে হেঁটে সেলফি তুলব না,’’ আত্মবিশ্বাসী শোনায় তাঁকে।

গভীরে যাও...

পরপর সেলফি ক্লিক করে নিজের সবচেয়ে ভাল সেলফিটা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা। কমেন্ট পাওয়া।

এ শুধুই নার্সিসিজম? না কি রয়েছে আরও গভীর কোনও ব্যাধি?

মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. রিমা মুখোপাধ্যায়কে বেশ চিন্তিত শোনাল। ‘‘অল্পবয়সের ছেলেমেয়েদের পিয়ার অ্যাডমিরেশন পাওয়ার একটা ব্যাপার থাকে। কেরিয়ারের দিক থেকে হয়তো এরা তেমন কিছুই অ্যাচিভ করতে পারল না। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করে রাতারাতি ‘হিরো’ হয়ে যাচ্ছে। এটাই বা কম কী? কিছু ইম্পালসিভ লোকজন আছে। দুমদাম বিপজ্জনক কাজ করে ফেলছে। একাকীত্বও একটা বড় কারণ। নার্সিসিজম তো আছেই। বেশ মাচো হলাম, সবাই আমাকে প্রশংসা করল। বিপদ যে হবে, সে জ্ঞান কোথায়?’’ বলেন তিনি।

সেলফি-স আর ব্যাড

কিন্তু সমাজেরও কি কোনও দায় নেই?

‘‘প্রিঅকুপেশনের অভাব একটা বড় কারণ। যে সময়টা এঁরা কোনও কোয়ালিটি কাজ করে কাটাতে পারতেন, সেই সময়টাই নিয়ে নিচ্ছে সেলফি বা হোয়াটস্অ্যাপ। ওঁরা নিজেরাও খবরের কাগজে পড়ছেন নানা ঘটনার কথা। কিন্তু ডাইভার্ট হচ্ছেন না,’’ বলছিলেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজতত্ত্ব বিভাগের অ্যাসোশিয়েট প্রফেসর ডালিয়া চক্রবর্তী।

অভিনেত্রী ত্রিধা চৌধুরী যেমন সেলফি তুলতে গিয়ে ভালই বিপদে পড়েছিলেন কয়েক বার। ‘‘একটা গেট টুগেদারে লো স্টুলের ওপর দাঁড়িয়ে সেলফিতে বন্ধুদের এক ফ্রেমে আনতে গিয়ে পড়ে যাই। অলমোস্ট ইনজিওর্ড মাই অ্যাঙ্কল। আর একবার চলন্ত গাড়ির সান-রুফে উঠে সেলফি তুলছিলাম বন্ধুকে নিয়ে। গাড়িটা ব্রেক দেয়। অ্যাক্সিডেন্ট হতে হতে বেঁচে যাই,’’ বলেন ত্রিধা।



সেলফি তোলার নিত্যনতুন টিপস থেকে সেলফি ফোন। নিখুঁত সেলফির লুক পেতে কসমেটিক সার্জেনদের ক্লিনিকে লম্বা লাইন।

এত কিছুর পরে যুবরাজ প্রিন্স হ্যারিরাও কিন্তু থেকে যাবেন। ক্যানবেরায় অস্ট্রেলিয়ান ওয়ার মেমোরিয়াল ঘুরতে গিয়ে সেলফি-পাগল এক ফ্যানকে হ্যারি বলেই বসেন, ‘‘আই হেট সেলফি-স। সিরিয়াসলি, ইউ নিড টু গেট আউট অব ইট। আই নো ইউ আর ইয়াং। বাট সেলফি-স আর ব্যাড।’’

বাকিটা আপনারাই বুঝুন!

বিপদের সেলফি

• গাড়ি চালাতে চালাতে জানলা দিয়ে মুখ বাড়িয়ে সেলফি কখনওই নয়

• ইন্টারনেট থেকে ছবি সহজে ডিলিট হয় না। যৌন উত্তেজক সেলফির লিঙ্ক লিক হলে হাত ঘুরতে সময় নেবে না

• পাহাড়ের ঢালে দাঁড়িয়ে আছেন। দারুণ ব্যাকগ্রাউন্ড। সেলফি তুলতে গিয়ে আত্মহারা হবেন না

• চিড়িয়াখানায় ঘুরতে যান। খাঁচাবন্দি জন্তুজানোয়ারদের সঙ্গে সেলফি তুলতে নয়

• একসঙ্গে অনেককে নিয়ে সেলফি তুলছেন? সেলফি স্টিকের সাহায্য নিন। কোনও বেখাপ্পা জায়গায় দাঁড়িয়ে বা উঁচু জায়গা থেকে সেলফি নিতে যাবেন না

• নতুন পদ রাঁধছেন? গ্যাস ওভেনের সামনে দাঁড়িয়ে সেলফি নয়। রান্না পুড়বে না আপনি, কে বলতে পারে!

আরও পড়ুন

Advertisement