প্রথম ছবিতে হেভি ওয়েট নিয়েই কামাল করেছিলেন। তাঁর ওজনই নাকি ছবিকে এক অন্য মাত্রা এনে দিয়েছিল। ‘দম লাগাকে হাইসা’ ছবিতে এরকমই এক অতিরিক্ত ওজনের ঘরোয়া চরিত্রের মেয়ের প্রয়োজন ছিল। যে কিনা রোমান্স তো করবেই, কিন্তু একটু ঘরোয়া চালে। সঙ্গে আচার ব্যবহারকেও সমানতালে সম্মান দেখাবে। ভূমি পেদনাকারের কোনও ধারণাই ছিল না। হঠাৎ করেই  যশ রাজের কাস্টিং ডিরেক্টর থেকে সোজা মূলধারার অভিনেত্রী হয়ে ওঠেন।

 ‘দম লাগাকে হাইসা’ ছবির পরে ভূমি

কিন্তু সব ছবিতে তো আর এই ধরনের চরিত্র পাওয়া যায় না। কখনও স্টিরিওটাইপ চরিত্রের মধ্যেও নিজেকে ঝালিয়ে নিতে হয়। তাই নতুন ছবির জন্য নিজেকে একেবারে পাল্টে ফেললেন নায়িকা। অভিনয় করবেন অক্ষয় কুমারের বিপরীতে। ছবির নাম ‘টয়লেট-এক প্রেম কথা’। নতুন চরিত্রে বাজিমাত করতে ঝরিয়ে ফেলেছেন অনেকটা ওজন। এই চরিত্রটিও যে নতুনত্ব আছে, তা স্বয়ং ভূমিই জানিয়েছেন। দ্বিতীয় ছবির জন্য উচ্ছ্বসিত ভূমি বলেন, “মূল ধারার সিনেমায় অভিনয় করবার ঝুঁকিটা দ্বিতীয় ছবিতেই টের পাচ্ছি। আমার মনে হচ্ছে এই ছবি দিয়ে আমি বলিউডে রিলঞ্চ হচ্ছি। মনে হচ্ছে আর একবার ডেবিউ করছি।”

আরও পড়ুন- ফের বিয়ে করবেন? হৃতিক বললেন…

‘দম লাগাকে হাইসা’র তুলনায় ‘টয়লেট এক প্রেমকথা’র গল্প অনেকটাই আলাদা। ২৭ বছরের ভূমির মতে, “ভূমি বাস্তব জীবনে যেমন, দম লাগাকেতেও তেমনই দেখানো হয়েছে। এই ছবি আমার ভিতর থেকে সেই নায়িকা সত্তাটাকে বের করে নিয়ে আসছে।” ২ জুন মুক্তি পাবে শ্রী নারায়ণ সিংহ পরিচালিত ‘টয়লেট এক প্রেমকথা’। 

আরও পড়ুন- ফিল্মের জন্য মাত্র এক টাকা পারিশ্রমিক নিলেন এই অভিনেতা!