Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

পদ্মাবতী কাণ্ডের প্রতিবাদে ব্ল্যাকআউট করছে বলিউড

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২৫ নভেম্বর ২০১৭ ১৮:৪৪
‘পদ্মাবতী’ ছবিতে দীপিকা।—ফাইল চিত্র।

‘পদ্মাবতী’ ছবিতে দীপিকা।—ফাইল চিত্র।

ব্ল্যাক আউটের পথে হেঁটেই ‘পদ্মাবতী’র পাশে দাঁড়াচ্ছে গোটা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি। আগামী কাল রবিবার ১৫ মিনিটের জন্য ওই ‘ব্ল্যাক আউট’-এর ডাক দিয়েছে ‘ইন্ডিয়ান ফিল্ম অ্যান্ড টিভি ডিরেক্টর্‌স অ্যাসোসিয়েশন’ (আইএফটিডিএ)-সহ ২০টি সংগঠন। এর ফলে রবিবার দেশ জুড়ে কোথাও শুটিং-এর কোনও কাজই হবে না। এমনকী, স্টুডিওগুলির শুটিং ফ্লোরেও নিভিয়ে রাখা হবে সমস্ত আলো।

আইএফটিডিএ-র তরফে অশোক পণ্ডিত বলেন, ‘‘পদ্মাবতী এবং সঞ্জয় লীলা ভংসালীর পাশে দাঁড়াতেই এই প্রতিবাদ। যে কোনও সৃষ্টিশীল মানুষেরই নিজের মতো করে গল্প বলার স্বাধীনতা আছে। সঞ্জয় অত্যন্ত দায়িত্বশীল পরিচালক৷ তিনি জেনে-বুঝেই কোনও সিনেমা তৈরি করেন৷’’ সঞ্জয়ের এই ছবির কাজ যখন থেকে শুরু হয়েছে, প্রায় তবে থেকেই রাজপুতদের একটা অংশ প্রতিবাদে নেমেছে। সঞ্জয়ের দাবি ছিল, সম্পূর্ণ তথ্য না জেনেই বিক্ষোভ দেখানো হচ্ছে। ব্যক্তিগত স্তরেও আক্রমণের মুখে পড়েছেন ছবির কুশীলবরা। এমনকী তাঁদের প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে। হুমকি-হুঁশিয়ারি যাঁরা দিচ্ছেন তার মধ্যে বিজেপি-র নেতানেত্রীরাও রয়েছেন।

আরও পড়ুন: দীপিকার গানে নাচলেন মানুষী ছিল্লর, দেখুন ভাইরাল ভিডিও

Advertisement

আইএফটিডিএ-র মতে এ ধরনের পরিস্থিতি বদল হওয়া উচিত। বেশির ভাগ সময়ই কিছু সৃষ্টিশীল কাজের জন্য তার পরিচালক-অভিনেতা-অভিনেত্রীদের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয়৷ সরকারও অনেক সময় তাঁদের পাশে দাঁড়ায় না বলেও অভিযোগ করেন পণ্ডিত৷ তাঁর মতে, গ্ল্যামার জগতকে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করে দেখাটা স্বভাবে দাঁড়িয়ে গিয়েছে৷ এ সবের বিরুদ্ধে এই ভাবেই অহিংস প্রতিবাদ চালিয়ে যাওয়া হবে বলে জানান আইএফটিডিএ-র ওই সদস্য৷

আরও পড়ুন

Advertisement