Advertisement
২৮ নভেম্বর ২০২২
Tathagata Mukherjee

Bibriti Chatterjee: তথাগতর সঙ্গে প্রেম নয়, আমার কাজ নিয়ে চর্চা হোক: বিবৃতি

১১ অগস্ট মুক্তি পেতে চলেছে ‘ভটভটি’। ছবি মুক্তির আগে আনন্দবাজার অনলাইনের মুখোমুখি টলিপাড়ার নতুন ‘জলপরী’ বিবৃতি চট্টোপাধ্যায়।

অকপট বিবৃতি চট্টোপাধ্যায়

অকপট বিবৃতি চট্টোপাধ্যায়

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৭ জুলাই ২০২২ ২০:১৭
Share: Save:

প্রশ্ন:‘পরি’ হওয়ার অনুভূতি কেমন?

Advertisement

বিবৃতি: এখনও বিশ্বাস হচ্ছে না। নিজেকে জলপরি রূপে দেখতে পাব,তা-ও আবার বড়পর্দায়! খুব উত্তেজিত। সাঁতার কাটতে পারতাম না। সেই আমি সাঁতার শিখে এখন ‘ভটভটি’র জলপরি। ভেবেই ভাল লাগছে।

প্রশ্ন: করোনা পরিস্থিতি কাটিয়ে দর্শক এখন হলমুখী। সেক্ষেত্রে নিজের ছবি নিয়ে কতটা আত্মবিশ্বাসী আপনি?

বিবৃতি: আমরা যদি দর্শকের ভাল লাগা, মন্দ লাগাকে সম্মান করি, ওঁরাও নিশ্চয়ই প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে ছবি দেখবেন। আমাদের বুঝতে হবে কোন ধরনের দর্শকের জন্য এই ছবিটা তৈরি করেছি। ‘ভটভটি’ শুধু রূপকথার গল্প নয়, প্রেম-ভালবাসা, বিরহ— সব ধরনের উপাদান রয়েছে এই ছবিতে।

Advertisement

প্রশ্ন: ছবির সঙ্গে প্রেম, বিরহ, তথাগত-দেবলীনা— সব কিছুই জড়িয়ে। নিজের ব্যক্তিগত জীবনকে আগলে রাখলেন কী ভাবে?

বিবৃতি: ‘ভটভটি’ একটা বিশ্বাসের গল্প। নিজেদের স্বপ্নের উপর বিশ্বাস রাখার কাহিনি। সেই বিশ্বাসই আমাকে, দেবলীনাদি, তথাগতকে এক সুতোয় গেঁথেছে। ওদের বন্ধুত্বের শুরুর দিন থেকে ‘ভটভটি’ রয়েছে। আর এই মুহূর্তে ব্যক্তিগত জীবন,পেশাদার জীবন সব কিছুর ঊর্ধ্বে ‘ভটভটি’।

প্রশ্ন: আপনি ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন। এখানে প্রতিটি পদক্ষেপ ইঞ্চিতে মাপা হয়। নিজেকে সামলে রাখা কতটা কঠিন?

বিবৃতি: আমি ভাগ্যবতী, জীবনে এত শুভাকাঙ্ক্ষী রয়েছে, যারা আমার ভুলটা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়। আমার দুঃখে ওরাও কষ্ট পায়। আর আমার পরিবার জানে, আমি কোনও অন্যায় করব না কখনও। পরিবারই আমার শক্তি।

প্রশ্ন: কিন্তু এই যে প্রেম, বিচ্ছেদ নিয়ে এত চর্চা হয়, অসুবিধা হয় না ?

বিবৃতি: আমি সব সময়ে চেয়েছি বিবৃতি চট্টোপাধ্যায়কে মানুষ কাজ দিয়ে চিনুন। আমি কখনও নেতিবাচক আলোচনা করতে চাই না। কাজ ছাড়া অন্য কারণে শিরোনামে থাকতে চাই না। কাজ ছাড়া অন্য কিছু নিয়ে বিবৃতি কখনও বিবৃতি দেয়নি। আর দেবেও না। এর মধ্যেই অনেক মানুষের কুৎসিত চেহারা দেখেছি। তাদের কুমন্তব্য আমার এগিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরণা।

প্রশ্ন: সম্পর্ক ভাঙাকে আপনি কী চোখে দেখেন?

বিবৃতি: ছোট থেকে বহু প্রেম, বহু বিচ্ছেদ দেখেছি জীবনে। এগুলো তো জীবনেরই অংশ। যে কোনও সম্পর্ক ভাঙতে পারে। তা বাবা-মেয়ে হতে পারে, বন্ধুত্বের সম্পর্কও হতে পারে।

প্রশ্ন: পরিচালক-নায়িকার প্রেম টলিউডে নতুন নয়। আপনার সঙ্গে পরিচালক তথাগতর প্রেম নিয়ে এত চর্চা। কী ভাবে দেখেন?

বিবৃতি: দিনের শেষে আমি একজন নবাগতা। এখনও এমন কোনও কাজ করিনি,আমাকে নিয়ে চর্চা হবে। কিন্তু এই সম্পর্ককে কেন্দ্র করে পরিচিতি আমি সত্যিই চাই না।

প্রশ্ন: আগামী পাঁচ বছরে নিজেকে কোথায় দেখতে চান?

বিবৃতি: জানি না, হয়তো আরও ছবি করব। আরও গুজব ছড়াবে। সেই নিয়ে মুখ খুলতে চাইব না। এটাই হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.