• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রামমোহন ‘দেশদ্রোহী’, ‘ব্রিটিশদের চামচা’, ফের বিতর্কিত মন্তব্য পায়েল রোহতগির

Payal Rohatgi
ফের বিতর্কে পায়েল রোহতগি। ছবি: টুইটার থেকে সংগৃহীত।

Advertisement

রাজা রামমোহন রায়কে ‘দেশদ্রোহী’ বলে ফের বিতর্ক বাধালেন অভিনেত্রী পায়েল রোহতগি। দু’দিন আগে নিজের টুইটার হ্যান্ডলে এমন মন্তব্য করেন তিনি। তা নিয়ে বাগযুদ্ধ জারি টুইটারে।

টুইটারে গর্বিত হিন্দু বলে নিজের পরিচয় দিয়েছেন পায়েল। তাঁর টুইটার হ্যান্ডলের নাম ‘পায়েল রোহতগি অ্যান্ড টিম-ভক্তস অব ভগবান রাম)। গত ২৩ মে সেখান থেকেই রামমোহনকে ‘দেশদ্রোহী’ এবং ‘ব্রিটিশদের চামচা’ বলে উল্লেখ করেন তিনি।

একটি পোস্টে রামমোহনকে সমাজ সংস্কারক বলে উল্লেখ করা হলে, তার বিরোধিতা করে পায়েল লেখেন, ‘ব্রিটিশদের চামচা ছিলেন উনি। সতীদাহ প্রথাকে বদনাম করতে ওঁকে ব্যবহার করা হয়েছিল। সতীদাহ প্রথা মোটেই জোর করে চাপিয়ে দেওয়া হয়নি। বরং মুঘল আক্রমণকারীদের হাত থেকে হিন্দু নারীদের সতীত্ব রক্ষার জন্যই এই প্রথা চালু হয়েছিল, যা নিজের ইচ্ছাতেই বরণ করে নিয়েছিলেন মহিলারা। এটা পিছিয়ে যাওয়া মনোভাবের পরিচয় নয়।’

আরও পড়ুন: আরও এক দফা পে কমিশনের মেয়াদ বাড়াল রাজ্য সরকার, তীব্র ক্ষোভ কর্মী মহলে​

তবে সেখানেই থামেননি পায়েল। গত তিন-চার দিনে জহর ব্রত নিয়েও একাধিক বার সাফাই দিয়েছেন তিনি। তাতেই মেজাজ হারিয়েছেন নেটিজেনরা। তাঁর বিরুদ্ধে ‘বাক স্বাধীনতা’র অপব্যবহারের অভিযোগ তুলেছেন কেউ কেউ। কেউ কেউ আবার বলেছেন, সংসদে ঢোকার জন্যই এমন আচরণ করছেন তিনি।

আরও পড়ুন: রাজনৈতিক অস্পৃশ্যতা ও সন্ত্রাসের শিকার বিজেপি, বারাণসীর সভায় বললেন মোদী​

এর আগে, দিল্লিতে মুঘল সম্রাটদের নামে যত রাস্তা রয়েছে, তা বদলে হিন্দু রাজাদের নামে করে দেওয়ার দাবি তুলে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন তিনি। দিল্লির বিখ্যাত খান মার্কেটের নাম বদলে বাল্মিকী মার্কেট করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। সে বারও তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল তাঁকে। 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন