#মিটু অভিযোগে বিদ্ধ রাজকুমার হিরানি কি কার্যত গৃহবন্দি? এমন দাবি করেছেন পরিচালকের এক প্রতিবেশী। তাঁর বিরুদ্ধে গুরুতর যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছেন সঞ্জু ছবির এক সহ-নির্দেশক। এই অভিযোগের পর ‘এক লড়কি কো দেখা তো অ্যায়সা লাগা’র সহ-প্রযোজক হিসেবে বাদ গেছে তাঁর নাম। তার পর থেকেই নিজেকে কার্যত গৃহবন্দি রেখেছেন হিরানি।

পরিচালকের এক প্রতিবেশী জানান, এখন তাঁকে আর মর্নিং ওয়াকে দেখা যায় না। সারাক্ষণ ঘরেই থাকেন। এমনকি, তিনি বেশ রোগা হয়ে গেছেন বলে দাবি করেন ওই প্রতিবেশী। রাজকুমার ঘনিষ্ঠদের দাবি, তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের প্রেক্ষিতে যারপরনাই বিব্রত রাজকুমার। মানসিক ভাবে বিধ্বস্ত। যার প্রভাব হিরানির চলন-বলন ও শরীরের ওপর পড়েছে বলে দাবি।

এরই পাশাপাশি, #মিটু নিয়ে মুখ খুললেন অজয় দেবগণ। এর আগে এই আন্দোলনকে সমর্থন জানালেও মুখ খোলেননি তিনি। কিন্তু পিটিআই-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অজয় বলেছেন, “যৌন নিগ্রহে অভিযুক্ত হিসেবে এমন কয়েক জনের নাম তিনি শুনেছিলেন, যা নিজের কানকে বিশ্বাস হয়নি।’’ তাঁর মতে, কিছু মানুষ এমন কাজ করে, সকলে না। তবে যত ক্ষণ পর্যন্ত অভিযোগ প্রমাণিত না হয়, তত ক্ষণ তিনি এ বিষয়ে প্রকাশ্যে মুখ খুলতে নারাজ।

আরও পড়ুন, পঙ্কজ ত্রিপাঠীর হলিউডে পা

বর্তমান প্রজন্মের মানসিকতাকে কুর্ণিশ জানিয়ে অজয় বলেছেন, আগে যা চলত, এখন তা চলবে না। সময় বদলাচ্ছে, আমরা বদলাচ্ছি। তাল মিলিয়ে নতুন প্রজন্মের মানসিকতা বদলাচ্ছে। এখন সবেতে প্রচারমাধ্যম ঢুকে যাচ্ছে তাই সব কীর্তিই সামনে আসবে।’’

(হলিউড, বলিউড বা টলিউড - টিনসেল টাউনের টাটকা বাংলা খবর পড়তে চোখ রাখুন আমাদের বিনোদনের সব খবর বিভাগে।)