অনুষ্কা শর্মার পর এ বার রণবীর সিংহ! টুইটারে ‘বততমিজ ইনসান...পাগল ইনসান...ফ্লপ অ্যাক্টর— এই ধরনের নতুন সম্বোধনে ভূষিত হলেন। সোজা কথায় ট্রোলড হলেন! কেন?

মুম্বইয়ের রাস্তায় রণবীর যখন গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছিলেন, তখন সামনে থেকে র‌্যাশ ড্রাইভ করে একটি গাড়ি তাঁর গাড়ির দিকে ধেয়ে আসে। স্বভাবতই রণবীর ওই গাড়ির চালকের উদ্দেশে কড়া গলায় বাছা বাছা কিছু শব্দ প্রয়োগ করেন। তাতে ওই গাড়ির চালক আরও বেঁকে বসেন। গোটা ব্যাপারটা ভিডিয়ো করে টুইটে ছেড়ে দেন। এমন ভাবে ছাড়েন যাতে মনে হয়, রণবীর যেন অকারণেই তাঁর উপরে চড়াও হয়েছেন।

এই টুইট দেখে রণবীরের ফ্যানেরা বেশ বিরক্ত হন। অনেকেই বলেন, এ ভাবে একতরফা রেকর্ডিং করে ওই ব্যক্তি নিজের পাবলিসিটি কুড়োতে চাইছেন। ভিডিয়োটির সত্যতা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। কারণ, ওই ভিডিয়োতে রণবীরকে পরিষ্কার দেখা যাচ্ছে না। অনেকের এমনও সন্দেহ, লোকটি মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন ও গাড়ি চালানোর সময় তাঁর কানে মোবাইল ছিল। অনেকে এমন আশঙ্কাও প্রকাশ করেন, গাড়িটির গতি এতটাই বেশি ছিল যে, দুর্ঘটনা ঘটলে রণবীরের বড় রকমের ক্ষতিও হতে পারত। সে কারণে এই চালকের গুরুতর শাস্তি হওয়া উচিত বলে বিভিন্ন প্রান্তের রণবীর-ভক্তদের টুইট থেকে দাবি উঠেছে।

আরও পড়ুন: চুপি চুপি ব্যাচেলর পার্টিটাও সেরে ফেললেন রণবীর-দীপিকা?

সাধারণ মানুষের সঙ্গে সেলিব্রিটিদের এ হেন টক্কর নতুন নয়। বেশ কিছু দিন আগেই রাস্তায় প্যাকেট ছুড়ে ফেলার জন্য অনুষ্কা শর্মা পাশের গাড়ির আরোহী এক জনের উপর যথেষ্ট কড়া ভাষা প্রয়োগ করে রাস্তা পরিষ্কার রাখার পরামর্শ দেন। গোটা ঘটনা টুইট করেও জানান অনুষ্কা। স্ত্রীর সমর্থনে এগিয়ে আসেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহালিও। তখন আরহান সিংহ নামে ওই ব্যক্তি পাল্টা টুইট করে ক্ষমা চাইলেও জানান, ছোট্ট একটি প্লাস্টিক রাস্তায় ফেলার জন্য অনুষ্কা এ ধরনের ভাষা প্রয়োগ না করলেও পারতেন।

(রণবীর, দীপিকা, প্রিয়ঙ্কা, অনুষ্কা, ক্যাটরিনা - বলি তারকাদের হাঁড়ির খবর আমাদের বিনোদন বিভাগে।)