Advertisement
০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

গুলজারসাব আমাকে ওঁর বড় মেয়ে বলে ডাকেন

তাই বলে মেঘনা গুলজারের ছবি ‘তলোয়ার’য়ে তব্বুর চরিত্র কি খুব গুরুত্বপূর্ণ? খোঁজ নিলেন প্রিয়াঙ্কা দাশগুপ্তচারিদিকে গুলজার-কন্যা মেঘনার নতুন ছবি নিয়ে চর্চা শুরু হয়ে গিয়েছে। শিরোনামে এসেছে তিনি নাকি আরুশি তলোয়ারের বিতর্কিত হত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে সিনেমা করছেন। আর সেখানে মুখ্য ভূমিকায় রয়েছেন ইরফান আর তব্বু। মেঘনা গুলজারের ছবি ‘তলোয়ার’য়ে তব্বুর চরিত্র কি খুব গুরুত্বপূর্ণ? খোঁজ নিলেন প্রিয়াঙ্কা দাশগুপ্ত

তব্বু

তব্বু

শেষ আপডেট: ০৮ জুন ২০১৪ ২১:২৩
Share: Save:

চারিদিকে গুলজার-কন্যা মেঘনার নতুন ছবি নিয়ে চর্চা শুরু হয়ে গিয়েছে। শিরোনামে এসেছে তিনি নাকি আরুশি তলোয়ারের বিতর্কিত হত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে সিনেমা করছেন। আর সেখানে মুখ্য ভূমিকায় রয়েছেন ইরফান আর তব্বু।

Advertisement

সেই খবর প্রকাশিত হওয়ার পর থেকেই অনেক তোলপাড় শুরু হয়েছে। এক অংশের দাবি, এ বিষয়ে ছবি তৈরি করলে তা মুক্তি পাওয়া নিয়ে বিস্তর গণ্ডগোল হতে পারে। এর আগে পরিচালক মণীশ গুপ্ত ‘রহস্য’ বলে একটা ছবি তৈরি করেছিলেন। গুজব শোনা যাচ্ছে, ছবিটা আরুশি হত্যাকে কেন্দ্র করে তৈরি। তবে আরুশির বাবা-মা রাজেশ আর নূপুর তলোয়ার ছবিটির মুক্তি রোধ করার জন্য মুম্বই হাইকোর্টে আর্জি জানিয়েছিলেন। নূপুর আর রাজেশ দু’জনেই এখন যাবজ্জীবন সাজা খাটছেন। যদিও মণীশ বলছেন যে, তাঁর চিত্রনাট্য সম্পূর্ণ কাল্পনিক, তবে নূপুর/রাজেশের এক আত্মীয় ছবিটি দেখে সে কথা মেনে নেননি। ছবির মুক্তি নিয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। পরের শুনানির তারিখ ১৩ জুন ধার্য হয়েছে।

যখন একটা ছবি এ রকম ঝামেলায় আটকে রয়েছে, সেখানে গুলজার-কন্যা সেই একই বিষয় নিয়ে কাজ করতে চাইবেন কেন?

ইন্ডাস্ট্রি সূত্রে খবর হল, এ ছবির নাম দেওয়া হয়েছে ‘তলোয়ার’। কিন্তু তলোয়ার শব্দকে শুধুমাত্র একটা পদবি হিসেবে দেখানোটা তো একপেশে চিন্তা হয়ে যাবে। তলোয়ার শব্দের আর এক অর্থ তরবারি। অনেকেই মনে করছেন যে, তরবারি শব্দটাই আসলে ব্যবহার করা হয়েছে ছবির টাইটেলে।

Advertisement

শোনা গিয়েছে এ ছবিতে ইরফান থাকছেন এক ইনভেস্টিগেটিং অফিসারের ভূমিকায়। তাঁর স্ত্রীর চরিত্রে রয়েছেন তব্বু। চিত্রনাট্যে আছে যে, তাঁদের বিয়ের গণ্ডগোল নিয়ে ঝামেলা প্রায় ডিভোর্স অবধি গড়াতে চলেছে। যদিও খবরে এসেছে তব্বু খুব গুরুত্বপূর্ণ একটা চরিত্রে রয়েছেন। বাস্তবে কিন্তু সেটা হচ্ছে না। এ ছবিতে তব্বুর গেস্ট অ্যাপিয়ারেন্স রয়েছে। ছবির মূল প্লটের সঙ্গে তব্বুর গল্পের সাঙ্ঘাতিক কোনও যোগ নেই। মাত্র পাঁচটা দৃশ্যে দেখা যাবে তাঁকে। সেটা শ্যুটিং করতে লেগেছে হাতে গুনে তিন দিন।

ইরফান

তব্বুকে এ প্রসঙ্গে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, “শুনেছি অনেকেই ভাবছেন এ ছবিতে আমার একটা গুরুত্বপূর্ণ রোল রয়েছে। কিন্তু সেটা একদম ঠিক নয়। বস্কি (মেঘনা গুলজার) আমার ছোট বোনের মতো। গুলজারসাব আমাকে ওঁর বড় মেয়ের মতো মনে করেন। বস্কির ছবিতে কাজ করতে বললে সেটা আমি আমার কর্তব্য বলেই মনে করি।”

মেঘনার প্রথম ছবি ‘ফিলহাল’য়ে তব্বু অভিনয় করেছিলেন। “তাই বস্কি যখন আমাকে এত মিষ্টি করে এসে ছবিটা করতে বলে, তখন আমি রাজি হয়ে যাই। তবে আমার এখানে গেস্ট অ্যাপিয়ারেন্স,” বলছেন তব্বু। শেষে এটাও জানিয়ে দিচ্ছেন যে, ছবির কোনও প্রোমোতেই তাঁকে দেখা যাবে না।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.