কীর্তন। এই শব্দটা তাঁর নিঃশ্বাসে জড়িয়ে। বাঙালি শ্রোতার মন জয়ও করেছেন কীর্তন শুনিয়েই। তিনি গায়িকা অদিতি মুন্সি। শ্রোতাদের জন্য তাঁর নতুন উপহার ‘শ্রীকৃষ্ণের অষ্টোত্তর শতনাম।’

ছোট থেকেই কৃষ্ণভক্ত অদিতি। তাঁর কথায় অবশ্য, ‘গুরুভক্ত’। সে কারণে রবিবার জন্মাষ্টমীর দিন তাঁর প্রণাম জানালেন নতুন মিউজিক ভিডিও ‘শ্রীকৃষ্ণের অষ্টোত্তর শতনাম’-এর প্রকাশের মাধ্যমে। রবিবার থেকেই ইউটিউবে দেখা যাচ্ছে এই ভিডিও। ইতিমধ্যেই তা পছন্দ করছেন অদিতির অনুরাগীরা।

বছর দু’য়েক আগে বাঙালির ড্রইংরুম ভরে থাকত অদিতির কীর্তনের সুরে। রিয়্যালিটি শো-এ গাইতে যাওয়া অদিতি কীর্তনের সুরে মন ভরিয়েছিলেন সকলের। ফের কীর্তন ফিরেছে। ফিরেছে ধারাবাহিক ‘কৃষ্ণকলি’র হাত ধরে। এখানে নেপথ্য গায়িকা সেই অদিতিই। তাঁর নতুন কাজে সমর্থন পেয়েছেন শ্রোতাদের।

আরও পড়ুন, ‘আমাকে শুনতে হয়েছিল, কীর্তন? কী হবে এটা করে?’

অদিতির কথায়, ‘‘আমি গুরুভক্ত। বিয়ের আগে মা জন্মাষ্টমীতে গুরুদেবকে একটু একটু করে অনেক কিছুই বানিয়ে দিত। বিয়ের পর আমি আমার গোপালকে শ্বশুরবাড়িতে নিয়ে এসেছি। শ্বশুরবাড়িতেও গোপাল রয়েছে। সেই অর্থে কালকের দিনটা ছিল যমজ গোপালের জন্মদিন। খুব স্পেশ্যাল ছিল। আর শ্রদ্ধা জানানোর জন্য ‘শ্রীকৃষ্ণের অষ্টোত্তর শতনাম’-এর থেকে উপযুক্ত কিছু হত না। আমার এই কাজে অনেকে সাহায্য করেছে। মিউজিক করেছে অমিতদা। শ্রীখোল বাজিয়েছে মৃগনাভিদা। পারকরশন সোমনাথদা, ফ্লুট বুবুনদা আর রেকর্ডিস্ট ছিল তরুণদা।’’

পুজোতেও দর্শকদের উপহার দেওয়ার ভাবনা রয়েছে অদিতির। নতুন সিডি প্রকাশ করতে চান তিনি। মোট ছ’টি কীর্তন রয়েছে সেখানে। ওই সিডিতে বৈষ্ণব পদকীর্তন শোনার সুযোগ পাবেন দর্শক। কী নাম ভেবেছেন? অদিতি হেসে বললেন, ‘‘ওটাই তো মুশকিল। এখনও নাম ঠিক করতে পারিনি।’’

(হলিউড, বলিউড বা টলিউড - টিনসেল টাউনের টাটকা বাংলা খবর পড়তে চোখ রাখুন আমাদের বিনোদনের সব খবর বিভাগে।)