• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পুণে সুপারজায়ান্ট জিতল ৩ রানে

পুণেকে ডার্বি জেতালেন বেন স্টোকস

RPS

মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের জয়রথ অবশেষে থামল। জয়ের ডাবল হ্যাটট্রিকের পরে। থামিয়ে দিল স্টিভ স্মিথ, মহেন্দ্র সিংহ ধোনি-র রাইজিং পুণে সুপারজায়ান্ট।

বেন স্টোকস-কে এ বছর রেকর্ড দাম দিয়ে নিলামে কিনেছিল পুণে। দেখা যাচ্ছে, সিদ্ধান্তটা ভুল ছিল না। ব্যাট না হলে বল, কোনও একটা কিছুতে ঠিকই ছাপ রেখে যাচ্ছেন ইংল্যান্ডের অলরাউন্ডার। সোমবার ২১ রান দিয়ে দু’উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি শেষ ওভারে হার্দিক পাণ্ড্যের একটা অসাধারণ ক্যাচও নিলেন তিনি। প্রথম ওভারটা মেডেন করেছিলেন, ১৯তম ওভার করতে এসে স্টোকস মাত্র ৫ রান দিয়ে গেলেন। ওখানেই মুম্বইয়ের হাত থেকে ম্যাচ বেরিয়ে যায়। শেষ ওভারে ১৭ রান তোলা সম্ভব হয়নি ফর্মে থাকা রোহিত শর্মার পক্ষেও। ম্যান অব দ্য ম্যাচ স্বাভাবিক ভাবেই স্টোকস।

আইপিএলের অন্যতম বড় ম্যাচ, মহারাষ্ট্র ডার্বিতে জিতে আইপিএলের প্লে অফে থাকার দৌড়ে চলে এল পুণে। রোহিত শর্মার ৩৯ বলে ৫৮ রানও ম্যাচ জেতাতে পারল না মুম্বইকে।

আরও পড়ুন: কোহালির আজ ওয়ার্নার পরীক্ষা

মহেন্দ্র সিংহ ধোনি রান পাননি। স্মিথের সংগ্রহ ১৭। দুই ওপেনার অজিঙ্ক রাহানে (৩২ বলে ৩৮) এবং রাহুল ত্রিপাঠী (৩১ বলে ৪৫) দলকে ভাল জায়গায় নিয়ে গিয়েছিলেন। শেষ দিকে দ্রুত রান তোলেন মনোজ তিওয়ারি (১৩ বলে ২২)। কিন্তু তবু ১৬০ রানের স্কোর মুম্বইয়ের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ ছিল না। কিন্তু পুণের বোলিং এবং ফিল্ডিং ম্যাচ ঘুরিয়ে দেয়।

ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার নিয়ে স্টোকস বলছিলেন, ‘‘অলরাউন্ডার হওয়ার সুবিধে আছে। আপনি ব্যাটে কিছু করতে না পারলেও বল হাতে ম্যাচে ছাপ ফেলার একটা সুযো়গ থাকে। আমার ক্ষেত্রে যেমন হল।’’ ম্যাচের পরে রবি শাস্ত্রী বলছিলেন, ‘‘একটা টিমের প্রথম একাদশ যখন বাছা হবে, তখন চোখ বন্ধ করে স্টোকসের মতো অলরাউন্ডারকে দলে রাখতে হবে। ও এক জন গেমচেঞ্জার। সেরা টিমের বিরুদ্ধে নিজের সেরা খেলাটাকে বের করে আনতে পারে। আজকের জন্যই নিজের সেরা পারফর্ম্যান্সটা তুলে রেখেছিল যেন। বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার এখন বেন স্টোকস।’’ পর পর তিনটে ম্যাচ জিতে পুণে কিন্তু ফর্মে। আগামী বুধবার কলকাতা নাইট রাইডার্সের সামনে লড়াইটা কিন্তু সহজ হবে না।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন