গত বছর প্রথম নয়ের মধ্যে ছয় ম্যাচেই জিতেছিল প্রীতি জিন্টার ফ্র্যাঞ্চাইজি। কিন্তু, তার পরই খেই হারিয়ে ফেলে পঞ্জাব। শেষ পাঁচ ম্যাচেই হেরে যায় তারা। ১২ পয়েন্টে শেষ করে সপ্তম স্থানে। প্রীতি জিন্টার ফ্র্যাঞ্চাইজি কোনও বারই চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি। একবার ফাইনালে উঠেও হারতে হয়েছিল তাদের।

গত বারের মতো ক্রিস গেইল-লোকেশ রাহুলের ওপেনিং জুটি এ বারও দলের প্রধান শক্তি। দু’জন ছন্দে থাকলে যে কোনও বোলিং আক্রমণকে ছিন্নভিন্ন করার ক্ষমতা ধরেন। প্রথম উইকেটে গত মরসুমে দু’জনে তোলেন ৫৪৫ রান। গেইল এখন ফর্মেও আছেন। আর বিশ্বকাপের দলে থাকার জন্য বাড়তি উদ্দীপ্ত থাকবেন রাহুল। এ ছাড়াও ব্যাটিংয়ে আছেন ডেভিড মিলার, ময়াঙ্ক আগরওয়াল, করুণ নায়াররা। অলরাউন্ডারের ভূমিকায় মোজেস এনরিকে, স্যাম কুরানরা সাফল্য পেতেই পারেন।

বোলিংয়ে আবার স্পিনাররাই প্রধান ভরসা। অধিনায়ক রবিচন্দ্রন অশ্বিন ছাড়াও আছেন মুজিব উর রহমান, বরুণ চক্রবর্তীর মতো স্পিনাররা। পেস বিভাগে অ্যান্ড্রু টাইয়ের সঙ্গে যোগ দিচ্ছেন মহম্মদ শামি।


কিঙ্গস ইলেভেন পঞ্জাব


উইকেটরক্ষক

  • লোকেশ রাহুল
  • নিকোলাস পুরান
  • সিমরন সিংহ

ব্যাটসম্যান

  • ডেভিড মিলার
  • ময়াঙ্ক আগরওয়াল
  • করুণ নায়ার
  • সরফরাজ খান।
 

বোলার

  • রবিচন্দ্রন অশ্বিন (অধিনায়ক)
  • মহম্মদ শামি
  • অ্যান্ড্রু টাই
  • মুজিব উর রহমান
  • অঙ্কিত রাজপুত
  • মুরুগান অশ্বিন
  • অগ্নিবর্ষী আয়াচি
  • অর্শদীপ সিংহ
  • দর্শন নালকান্ডে
  • বরুণ চক্রবর্তী।
 

অলরাউন্ডার

  • ক্রিস গেইল
  • মোজেস এনরিকে
  • স্যাম কুরান
  • মনদীপ সিংহ
  • হর্ডাস ভিলজোয়েন
  • হরপ্রীত ব্রার।

নজরবন্দি তারকা


ক্রিস গেইল
ক্রিস গেইল
লোকেশ রাহুল
লোকেশ রাহুল
রবিচন্দ্রন অশ্বিন
রবিচন্দ্রন অশ্বিন
মহম্মদ শামি
মহম্মদ শামি

সাপোর্ট স্টাফ


মাইক হেসন
মাইক হেসন
কার কখন খেলা
পয়েন্টস টেবল