• ঋতুপর্ণা ভট্টাচার্য
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

জমে উঠেছে নিউ জার্সির পুজো প্রস্তুতি

Durga Puja
পুজো নিয়ে আলোচনা, অন্যান্য আনুষঙ্গিক কাজকর্ম শুরু হয়েছে এপ্রিল থেকে।

১৫ পার্ক অ্যাভিনিউ আমাদের চেনা অপর্ণা সেনের দৌলতে। কিন্তু  ৯৫০ পার্ক অ্যাভিনিউ দিয়ে খানিকটা হাঁটলেই পৌঁছে যাওয়া যায় নিউ জার্সির একটি অন্যতম পুরনো এবং জমজমাট দুর্গাপুজোয়। এ বার সেই পুজোর ছাব্বিশতম বর্ষ। এখানে পুজো হবে সপ্তাহান্তে দু’দিন। প্রতিবারই প্রস্তুতি শুরু হয়ে যায় সরস্বতীপুজোর পর থেকেই। এ বারও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। নতুন পুজো কমিটি গঠিত হয়েছে গত মার্চের শেয দিকে। পুজো নিয়ে আলোচনা, অন্যান্য আনুষঙ্গিক কাজকর্ম শুরু হয়েছে এপ্রিল থেকে। এ বছরের নতুন আকর্ষণ নতুন প্রতিমা। জলপথে দেবী কুমোরটুলি থেকে রওনা হয়েছেন দেশান্তরে। সাবেকিয়ানাই  পুজোর মূলমন্ত্র, যা চিরন্তন, মণ্ডপসজ্জা, পুজো পরিচালনা, জন সংযোগ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, খাওয়া-দাওয়া সব কিছুর দায়িত্ব ভাগ করে দেওয়া হয়েছে নানা কমিটির মধ্যে।

আরও পড়ুন: মহালয়ার তাৎপর্য নিয়ে ব্যাখ্যা অনেক

এ ছাড়া অনুষ্ঠান করতে আসছেন অনুপম রায়, অনীক ধর।  এ ছাড়া এখানকার ছোটদের অনুষ্ঠানও থাকছে। বড়দের অনুষ্ঠান, লোকসঙ্গীত ভিত্তিক নৃত্যনাট্যেরও মহড়া চলছে ভরপুর। পুরোদমে চলছে পুজো ম্যাগাজিনের লেখা আদায়, চলছে বাছাই পর্ব।

পুজোর মেনুতে বাঙালির চেনা ভোগ তো থাকছেই। সঙ্গে থাকছে নরম মিষ্টি পোলাও, ভেজ বিরিয়ানি, পনির, বেগুনী, চাটনি, ছোলার ডাল, বাঁধাকপি আর অনবদ্য তুলতুলে ফিশ ফ্রাই আর গরগরে কষা মাংস।  চণ্ডীপাঠ থেকে সন্ধিপুজো, ধুনুচি নাচ থেকে সিঁদুর খেলা, অঞ্জলি থেকে বিসর্জন—পরিমিত পরিসরে আয়োজন বিস্তর। ভারত সেবাশ্রমের পুরোহিতই এই পুজোর কর্ণধার। আজও সঙ্গে আছেন প্রতিষ্ঠাকালীন কিছু সদস্য। কিন্তু এই পুজোর সার্থকতা আসলে মানবতার জয়গানে। আয়লা, উত্তরাখণ্ড বিপর্যয়, হাইতি এবং নেপাল ভূমিকম্প ইত্যাদি প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে আর্থিক সাহায্য পৌঁছে গিয়েছে এখান থেকেই। ব্যবস্থা রয়েছে অসমর্থ অথচ মেধাবী পড়ুয়াদের জন্য উচ্চশিক্ষার ব্যবস্থা এবং সম্পূর্ণ আর্থিক অনুদানেরও। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন