• কুন্তক চট্টোপাধ্যায়
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

শিল্পীর হাতে প্রাণ প্রতিষ্ঠা লোহায়

pujo
মায়াজাল: সন্তোষপুর লেকপল্লির মণ্ডপসজ্জা। নিজস্ব চিত্র
লোহা বললেই মনে পড়ে নীরস, শক্ত এক ধাতুর কথা। কিন্তু সেই ধাতু দিয়েই এ বার পুজোয় রসের সঞ্চার করতে চাইছেন শহরের কিছু শিল্পী ও পুজো কমিটি। 
বছর কয়েক আগে ঢালাইয়ের লোহার কড়াইয়ের উপরে নকশা খোদাই করে নজর কেড়েছিল সন্তোষপুর লেকপল্লি। এ বারও তাদের মণ্ডপ সাজানোর উপাদান লোহা। যান্ত্রিক সভ্যতা থেকে মুক্তির থিমে শিল্পী শিবশঙ্কর দাস সেখানে মণ্ডপ সাজাচ্ছেন লোহা দিয়ে তৈরি নানা উপকরণে। থাকছে যান্ত্রিক ভাবে ঘূর্ণায়মান নানা যন্ত্র। পুজোকর্তা সোমনাথ দাস বলছেন, ‘‘এই এলাকার সব থেকে বেশি দর্শক টানব আমরাই।’’ 
 
হরিদেবপুরকে পুজোর মানচিত্রে জনপ্রিয় করার কৃতিত্ব অনেকটাই অজেয় সংহতির। ওই ক্লাবের এ বছরের থিম ‘শক্তিরূপেণ’। শক্তির জোগান থাকছে লোহার খুন্তি, কড়াই, কোদাল, বেলচার মতো নানা দৈনন্দিন জিনিসে। আপাত নীরস এই সব জিনিসেই শিল্পসৃষ্টির প্রয়াস সেখানে। 
কয়েক বছর পরে এ বার পুজোয় ফিরে এসেছেন শিল্পী কমলদীপ ধর। বিশ্বভারতীর কলাভবনের এই প্রবীণ শিক্ষক এ বার হাতিবাগান নবীনপল্লিতে তুলে ধরছেন শহুরে যান্ত্রিক সভ্যতার ধাক্কায় হারিয়ে যাওয়া স্বাভাবিক জনজীবনকে। সেই থিম সাজানোর উপকরণ লোহা এবং গ্যালভানাইজড তার। তার সঙ্গে এ বারই চমক লাগাতে ওই পুজোয় থাকছে অতিবেগুলি রশ্মির মায়াজালও। 
 
লোহা, তামা, পিতলের মতো ধাতু দিয়ে থিম রাঙিয়ে তুলছে দক্ষিণের নামী পুজো বালিগঞ্জ কালচারাল। নন্দনা যুব সঙ্ঘের মণ্ডপ সাজাতেও লোহার পাত কেটে তৈরি করা হচ্ছে দৈনন্দিন নানা জিনিসপত্র। সেই সব জিনিসেই তাক লাগানো মণ্ডপ সাজাচ্ছেন শিল্পী। 
 
পাত নয়, এ বার লোহার পাইপে তাক লাগাতে চাইছে গৌরীবেড়িয়া সর্বজনীন। একই ছবি দেখা যাবে উল্টোডাঙা সংগ্রামীর পুজোতেও। সেখানেও থিমসজ্জার উপকরণ হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে লোহা। 
উত্তরের চালতাবাগানকে চলতি কথায় লোহাপট্টি বলেন কলকাতার মানুষজন। ওই পুজোর কর্মকর্তাদের বেশির ভাগই লোহার কারবারি। এ বার চালতাবাগানের পুজো মণ্ডপেও মিলবে লোহার সাজ। বছর কয়েক আগে উল্টোডাঙা এলাকার একটি পুজোয় লোহার ইনস্টলেশন গড়ে তাক লাগিয়েছিলেন শিল্পী কৃষ্ণপ্রিয় দাশগুপ্ত। এ বার দক্ষিণ শহরতলির নরেন্দ্রপুর গ্রিনপার্ক সর্বজনীনেও লোহা নিয়ে টক্করের থিম সাজছে কৃষ্ণপ্রিয়র হাত ধরে। দক্ষিণ শহরতলির ভিড় ওই পুজোয় উপচে প়ড়বে বলেই মনে করছেন কর্তারা। 
লোহায় প্রাণ সঞ্চার তো হচ্ছে। এ বছর উৎসব কাপে সেই প্রাণের ডাকে ভি়ড় কতটা সাড়া দেয় সেটাই দেখার। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন