• কাজল গুপ্ত
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘বাহুবলী’ কে, তাল ঠুকছে দুই পুজো

parikrama 2
টক্কর: সল্টলেকের সিএফ ব্লকের গণেশ পুজোয় জাহাজের আদলে মণ্ডপ। ছবি: শৌভিক দে

দু’জনের মধ্যে চোরা দ্বন্দ্ব সব সময়েই চলে। এলাকাবাসীর তেমনই দাবি। তবে বহু দিন তা প্রকাশ্যে দেখা যায়নি। এ বার ফের সেই দুই নেতার লড়াইয়ের জল্পনা ছড়িয়েছে। রাজনীতির আঙিনায় নয়, পুজোর ময়দানে।

কেষ্টপুর খালের এক দিকে ভিআইপি রোডে তৃণমূল বিধায়ক সুজিত বসুর শ্রীভূমি স্পোর্টিং ক্লাবের পুজো। আর খালের অন্য পারে সল্টলেকের সিএফ ব্লকে বিধাননগরের মেয়র তথা বিধায়ক সব্যসাচী দত্তের মৈত্রী সঙ্ঘের গণেশপুজো। শ্রীভূমির পুজোয় এ বারের ভাবনা ‘বাহুবলী ২’ ছবির রাজবাড়ি। চলছে মণ্ডপ তৈরির কাজ। আবার মৈত্রী সঙ্ঘের গণেশপুজোর থিমও বাহুবলী ছবির জাহাজ। সেই জাহাজের উপরে প্রায় ২২ ফুটের গণেশ। ইতিমধ্যেই এই পুজোয় ভিড় হচ্ছে ভালই।

এলাকার বাসিন্দারা বলছেন, ‘বাহুবলী’ নিয়ে তৃণমূলের দুই নেতার মধ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে টক্কর। কেউ বলছেন, এ তো থিম ‘হাইজ্যাক’। কারও কথায়, কে কাকে আগে টেক্কা দেবে, তা নিয়েই লড়াই। পুজো উপলক্ষ মাত্র। কারও আবার মত, এ রাজ্যে দুর্গাপুজোর জনপ্রিয়তার সঙ্গে গণেশপুজোর কোনও তুলনাই চলে না। শ্রীভূমির এ বারের ভাবনা নিয়ে অনেকের মধ্যেই উৎসাহ ছড়িয়েছে। কিন্তু পুজোর আগেই সেই থিম অন্যত্র চলে গেলে মুশকিল।

আরও পড়ুন: বাতিল বোতলে মণ্ডপে রামধনু

তবে, শ্রীভূমির কর্মকর্তারা এই ধরনের আলোচনাতেই রাজি নন। তাঁরা বলছেন, রাজ্যে পুজোকে কেন্দ্র করে একটা শিল্প তৈরি হয়েছে। সেখানে একই ধরনের থিম বিভিন্ন জায়গায় হতেই পারে। ক্লাবের সম্পাদক দিব্যেন্দুকিশোর গোস্বামী বলেন, ‘‘মানুষের ভিড়ই শ্রীভূমির মূল আকর্ষণ। আমরা কোনও প্রতিযোগিতায় যাইনি। এক সময়ে পূর্ব কলকাতায় একমাত্র আমাদের পুজোতেই মানুষের ঢল নামত। এখন অন্য পুজোতেও ভিড় বাড়ছে। এটা ভাল লক্ষণ।’’

অন্য দিকে, মৈত্রী সঙ্ঘের কর্মকর্তাদের একাংশ বলছেন, থিম কারও একার নয়। আর কে কোথায় কী করছেন, তা ভেবেও থিম তৈরি হয় না। এর মধ্যে না আছে লড়াই, না আছে টেক্কা দেওয়ার চেষ্টা।

আরও পড়ুন: শিল্পীর ভাবনায় নিজস্বী

দ্বন্দ্বের জল্পনা উড়িয়ে সব্যসাচীবাবুর বক্তব্য, ‘‘কোথা থেকে যে আপনারা লড়াই খুঁজে পান, তা বুঝতে পারি না। আমার ক্লাব শক্তির প্রতীক হিসেবে এই থিম বেছেছে। দুর্গাপুজোর সঙ্গে তার বিরোধ কোথায়, তা জানি না। মানুষ আলোচনা করতেই পারেন। তবে সুস্থ প্রতিযোগিতা সব সময়েই কাম্য।’’

সুজিতবাবু বলেন, ‘‘যে কোনও বিষয় নিয়ে তুলনা করা ঠিক নয়। একই থিম অনেক জায়গায় হতেই পারে। তাই ভাবনার ক্ষেত্রে নয়, প্রতিযোগিতা হোক সৃষ্টির নিরিখে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন