• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

গাফিলতির অভিযোগ, সুপারকে ঘেরাও

2
রায়গঞ্জ হাসপাতালের সুপারকে ঘেরাও যুব কংগ্রেসের।—নিজস্ব চিত্র।

Advertisement

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে চিকিত্‌সায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে বিক্ষোভ দেখাল যুব কংগ্রেস। সোমবার দুপুরে রায়গঞ্জ জেলা হাসপাতাল সুপারকে পাঁচ ঘণ্টা ঘেরাও করে রাখার পর জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের আশ্বাসে বিক্ষোভ ওঠে। সংগঠনের তরফে সুপারের কাছে ১৬ দফা দাবিতে একটি স্মারকলিপিও জম্য দেওয়া হয়।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, এ দিন সংগঠনের কয়েকশো কর্মী-সমর্থক শহরে বিক্ষোভ মিছিল করে হাসপাতাল চত্বরে জড়ো হন। দুপুর দেড়টা থেকে সুপারের দফতরে তাঁকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ শুরু হয়। বিকেল পর্যন্ত বিক্ষোভকারীদের দাবির কোনও রকম সুরাহা না হওয়ায় উত্তেজনা ছড়ায়। আন্দোলনকারীদের চাপের মুখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে খবর পেয়ে সন্ধে ৬টা নাগাদ জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক রাসবিহারী দত্ত সেখানে পৌঁছন। এক সপ্তাহের মধ্যে তাঁদের দাবি পূরণের আশ্বাস দিলে আধ ঘণ্টার মধ্যে আন্দোলন তুলে নেওয়া হয়। রাসবিহারীবাবু বলেন, “যুব কংগ্রেসের অভিযোগ ও দাবি খতিয়ে দেখে উপযুক্ত পদক্ষেপ করা হবে।”

রায়গঞ্জ লোকসভা যুব কংগ্রেস কমিটির সভাপতি মানসকুমার ঘোষ জানান, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের গাফিলতির জেরে দীর্ঘ দিন ধরে রোগীরা সঠিক পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। তিনি বলেন, “একাধিক বিভাগ দীর্ঘ দিন ধরে বন্ধ হয়ে রয়েছে। চিকিত্‌সকদের একাংশ প্রাইভেট প্র্যাক্টিস ও নার্সিংহোম নিয়ে ব্যস্ত থাকেন। এ সমস্ত বন্ধ করার দাবিতে আমরা স্মারকলিপি দিয়েছি।” কমিটির সহকারী সভাপতি তুষারকান্তি গুহ জানান, ৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিককে সময় দেওয়া হয়েছে। দাবি পূরণ না হলে অনির্দিষ্ট কালের জন্য সুপারের দফতর ঘেরাও করা হবে বলেও তাঁরা জানান।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন