a

কালা ম্যাঘে রুপালি র‌্যাখা

ঠিক সেই গন্ধটা পেলাম আমি, অবিকল সেই গন্ধটা। আর অমনি ঝাঁপি খুলে বেরিয়ে এল ইলিশের ঝাঁকের মতো মিষ্টি মিঠে স্মৃতির দল! বাইরে এখন বিকেলের বৃষ্টি, ইলশেগুঁড়ি। আর ওই দূর আকাশে ভাসছে কয়েক টুকরো কালো মেঘ, যেমন করে পদ্মা ভেসে যায় গঙ্গার টানে, কিংবা মেঘনার ডাকে তিতাসে ভাসতে থাকে আদরের নৌকা! লিখছেন শুভঙ্কর মুখোপাধ্যায়


a

ইলিশের বিয়ে

এ যেন সব বাঙালির আত্মজীবনীর একটি অধ্যায়। একদা সম্পন্ন একটি ঋদ্ধিশালী সভ্যতার স্মারক। লিখছেন ঋজু বসু


a

প্রবাসে ইলিশের বশে

জলের রুপোলি এই শস্যটির মায়াটান বঙ্গের বাইরে দেশের রাজধানীতে আজও একই রকম মোহময়। লিখছেন অগ্নি রায়


a

তোমার ইলিশ, আমার ইলিশ...

গোলাপ যেমন সুন্দর, ইলিশও তেমনই সুন্দর। গাছ থেকে গোলাপ তুলতে গিয়ে কেউ যদি অসাবধান হয়, তা হলে যেমন কাঁটা লাগার সম্ভাবনা থাকে, তেমনই নিয়ম না জেনে ইলিশ খেতে গেলেও সেই একই ভাবে কাঁটা ফুটে যাওয়ার সম্ভাবনা। লিখছেন রজতেন্দ্র মুখোপাধ্যায়


a

টেমস-এর উজানে পদ্মার ইলিশ

অধিকাংশ মৎস্যভুক বাঙালি আসলে গঙ্গার ইলিশ আর পদ্মার ইলিশের সূক্ষ্ম তফাতটুকু বোঝেন না। বিতর্ক উস্কে দিলেন শুদ্ধব্রত দেব


a

ইলিশের ইলিউশন

সৈয়দ মুজতবা আলি বলেছিলেন, বেহেস্তে ইলিশ মাছ পাওয়া যায় না, তাই তিনি বেহেস্তে যাবেন না। রবি ঠাকুর বলেছিলেন, সব বাসনার সেরা বাসা রসনায়। রসনাতৃপ্তির জন্য বাঙালি অনেক অসাধ্যসাধন করতে প্রস্তুত। যতই দেশটা মার্কিন মুলুক হোক না কেন, মাছে-ভাতে বাঙালি ঠিক খুঁজে বার করবে একটি মাছের দোকান। লিখছেন জয়া ঘোষ


a

তিনি যেন রসনার ও-পারেই দাঁড়িয়ে

প্রথম কদম ফুল ফুটেছে, কিন্তু এ কলকাতায় তেমন একটানা বাদলদিন এখনও নেই৷ আষাঢ়ের পরে শ্রাবণ দুপুর সন্ধ্যায় ঘনিয়ে রাত্রি হয়ে পার হয়ে যেতে চলল ভাদ্রে, তবু এ শহরের সেই রাজপুত্তুর এখনও পকেট-বন্ধু হল না৷ বাজারে এখনও আগুন জলের সেই উজ্জ্বল শস্যটি৷ লিখছেন আশিস পাঠক


a

ইলিশ রকমারি

ইলিশ ভাপা, দই ইলিশ বা কালো জিরে দিয়ে পাতলা ঝোল তো অনেক খেয়েছেন। এ বার ট্রাই করুন নতুন কিছু। মার্কোপোলো-র শেফ অমিতাভ চক্রবর্তী শেয়ার করলেন একটি নতুন রেসিপি। বাড়িতেই অনায়াসে ট্রাই করতে পারেন ইলিশের এই নতুন পদটি।


a

ইলিশ পুজোর হদিস

বৃষ্টি আর ইলিশ যেন একে অপরের পরিপূরক। শহরের নানা রেস্তোরাঁয় এই রুপোলি শস্যকে নিয়ে উত্সব শুরু হয়েছে। এক ঝলকে জেনে নিন তার খোঁজখবর।