×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

৩১ জুলাই ২০২১ ই-পেপার

নারী-নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন হাইকোর্টের

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ০৭ মার্চ ২০১৫ ০৩:২২

কিছু দিন আগেই মুম্বইয়ে সারা রাত ধরে রেস্তোরাঁ এবং পাব খোলা রাখার জন্য টুইটারে প্রস্তাব দিয়েছিলেন শিবসেনার যুব শাখার নেতা আদিত্য ঠাকরে। সেই প্রস্তাব নিয়ে রাজ্য সরকার আদৌ কোনও সিদ্ধান্ত নিয়েছে কিনা, সে ব্যাপারে গত কাল মহারাষ্ট্র সরকারকে প্রশ্ন করেছিল বম্বে হাইকোর্ট। পাশাপাশি আদালত জানতে চেয়েছে, যদি এই প্রস্তাব কার্যকর করার কথা ভাবা হয়ে থাকে, তা হলে মহিলাদের সুরক্ষার বিষয়টি মাথায় রাখা হয়েছে কি?

মহিলাদের নিরাপত্তা সংক্রান্ত একটি জনস্বার্থ মামলার শুনানিতে গত কাল এই প্রশ্নগুলি তোলেন বিচারপতি অভয় ওকা। এর আগে এই মামলার শুনানির সময়ে হাইকোর্ট মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধ নিয়ন্ত্রণের জন্য বিচারপতি সি এস ধর্মাধিকারী কমিটিকে নিয়োগ (২০১০-এ গঠিত) করেছিল। এই কমিটি তার বিভিন্ন সুপারিশের মধ্যে মহিলাদের সুরক্ষা বাড়াতে ফের ডান্স বার নিষিদ্ধ করার প্রস্তাব দিয়েছিল। যা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়।

মুম্বইয়ের মোট ১২ হাজার রেস্তোরাঁ এবং দু’হাজার পাব ও বার এখন রাত দেড়টা পর্যন্ত খোলা থাকে। আদিত্য ঠাকরে প্রস্তাব দেন, সারা রাত সেগুলি খোলা রাখা যায় কিনা। এ ব্যাপারে সায় দেয় শহরের পুলিশও। আদিত্যের এই প্রস্তাবে তখন প্রশ্ন উঠেছিল শিবসেনার ‘রক্ষণশীল মনোভাবাপন্থী’ দলের নেতা হয়ে তিনি কী ভাবে এ সব বলছেন? যার উত্তরে আদিত্য বলেন, “সব দলই সময়ের সঙ্গে সঙ্গে দৃষ্টিভঙ্গি পাল্টায়।”

Advertisement

গত কাল বম্বে হাইকোর্ট রাজ্য সরকারের উদ্দেশে জানিয়েছে, সারা রাত রেস্তোরা-পাব-বার খোলা রাখার সিদ্ধান্ত হলে আদালত ধর্মাধিকারী কমিটিকে মহিলাদের সুরক্ষার বিষয়টি খতিয়ে দেখতে বলবে। ধর্মাধিকারী কমিটির দাবি, ডান্স বার যখন নিষিদ্ধ করা হয়েছিল, মহিলাদের উপরে নির্যাতনের হার অনেকটা কমানো গিয়েছিল।

ভাগবত-অমিত

জম্মু-কাশ্মীর ও জমি বিল নিয়ে আরএসএস শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে শুক্রবার আলোচনা করলেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। ভূস্বর্গে বিজেপি-পিডিপি জোট ক্ষমতায় আসার পরে মুফতি মহম্মদ সঈদের মন্তব্য নিয়ে জলঘোলা হয় বিস্তর। অমিত শাহ সঙ্ঘকে প্রকৃত পরিস্থিতি জানিয়েছেন বলে সঙ্ঘ সূত্রে খবর।

Advertisement