Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

ভাড়া বৃদ্ধিতে বিক্ষোভ, পথে বাম-কংগ্রেসও

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২২ জুন ২০১৪ ০২:২৪
রেলের ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদে এনসিপি কর্মীরা। শনিবার মহারাষ্ট্রের ঠানে স্টেশনে।  ছবি: পিটিআই

রেলের ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদে এনসিপি কর্মীরা। শনিবার মহারাষ্ট্রের ঠানে স্টেশনে। ছবি: পিটিআই

এক লাফে রেলের যাত্রী ভাড়া ১৪.২% এবং পণ্য মাসুল ৬.৫% বৃদ্ধির প্রতিবাদে দেশ জুড়ে পথে নামল সব বিরোধী দল। যাদের সরকারের আমলের শেষ দিকে রেলের ভাড়া বাড়ানোর নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়ে গিয়েছিল, প্রতিবাদে সামিল হতে দেখা গেল সেই কংগ্রেসকেও! এ রাজ্যে অবশ্য ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদে মূলত রাস্তায় দেখা গিয়েছে বামফ্রন্ট এবং এসইউসি-কে।

বিভিন্ন রাজ্যে কংগ্রেস ও বাম, উত্তরপ্রদেশে সমাজবাদী পার্টি, বিহারে লালুপ্রসাদের আরজেডি, তামিলনাড়ুতে করুণানিধির ডিএমকে শনিবার দেশের নানা প্রান্তে নানা দলকে রেলের ভাড়া বাড়ানোর প্রতিবাদে বিক্ষোভ করতে দেখা গিয়েছে। খাস রাজধানী দিল্লিতে অরবিন্দ্র লাভলির নেতৃত্বে কংগ্রেসের বিক্ষোভ সামলাতে পুলিশকে জল-কামান পর্যন্ত ব্যবহার করতে হয়েছে। উত্তরপ্রদেশের লখনউয়ে বিধান ভবনের কাছে সপা-র বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে বিজেপি-র কর্মী-সমর্থকদের সংঘর্ষ হয়েছে। অন্ধ্রপ্রদেশের বিশাখাপত্তনম বা ওড়িশার ভুবনেশ্বরে প্রতিবাদ-বিক্ষোভে দেখা গিয়েছে সিপিআই-সহ বামেদের। মুম্বইয়ের কংগ্রেস কর্মীরা আবার ভাড়াবৃদ্ধির প্রতিবাদের অভিনব পন্থা নিয়েছেন! তাঁরা ঠিক করেছেন, রেল মন্ত্রকের ওই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে কাল, সোমবার শহরতলির লোকাল ট্রেনে বিনা টিকিটেই চাপবেন! বিভিন্ন দলের বিক্ষোভ-প্রতিবাদের কর্মসূচিতে দিনভর ঘুরে বেড়িয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নির্বাচনী স্লোগান ‘সুদিন আসছে’! অবশ্যই ব্যঙ্গার্থে!

বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু শুক্রবারই জানিয়েছিলেন, যাত্রী ভাড়া ও পণ্য মাসুলের এক লাফে বিপুল বৃদ্ধির প্রতিবাদে অবিলম্বে তাঁরা রাস্তায় নামবেন। সেইমতোই শহরে এ দিন রাজ্য বামফ্রন্টের তরফে বিক্ষোভ-জমায়েত ছিল হাওড়া ও শিয়ালদহ স্টেশন চত্বরে। বিরোধী দলনেতা সূর্যকান্ত মিশ্র-সহ বাম শরিক নেতারা সেখানে উপস্থিত ছিলেন। মোদী-সরকারের বিরুদ্ধে দ্বিচারিতার অভিযোগ করে সূর্যবাবু বলেন, “এটাই গুজরাত মডেল! সংসদে রেল বাজেট পেশের আগেই রেল ভাড়া বাড়িয়ে দেওয়া হল।” মোদী গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন ২০১২ সালে এ ভাবে বাজেটের আগেই রেল ভাড়া বাড়িয়েছিল কংগ্রেস। মোদী কড়া সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহকে চিঠি দিয়েছিলেন। সেই তথ্য স্মরণ করিয়ে দিয়ে সূর্যবাবুর বক্তব্য, “নিজে প্রধানমন্ত্রী পদে বসে তিনি ঠিক সেই কাজই করলেন!” তাঁরা যে আগেই বলেছিলেন, কংগ্রেসের পথেই বিজেপি চলবে, সেই কথাও এ দিন ফের বলেছেন সূর্যবাবু। তাঁর কথায়, “ওরা দাম-ফ্রন্ট! আমরা বামফ্রন্ট।” ভোটারদের প্রতি সূর্যবাবুর আবেদন, “আগামী দিনে বিজেপি-কে ভোট দেওয়ার আগে ভেবে দেখবেন!”

Advertisement

ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদে এ দিন রাজভবনের সামনে বিক্ষোভ দেখিয়েছে এসইউসি। পুলিশের সঙ্গে তাদের ধ্বস্তাধ্বস্তিও হয়েছে। ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে বিক্ষোভ করায় পুলিশ ৭০ জন এসইউসি কর্মী-সমর্থককে গ্রেফতার করেছে। এ রাজ্যে কংগ্রেস অবশ্য এখনও সে ভাবে পথে নামেনি। তবে ভাড়া বৃদ্ধির পদ্ধতি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি তথা প্রাক্তন রেল প্রতিমন্ত্রী অধীর চৌধুরী। তাঁর বক্তব্য, ইউপিএ জমানার শেষ দিকে রেল ট্যারিফ রেগুলেটরি অথরিটি (রেল মাসুল নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ) তৈরির সিদ্ধান্ত মন্ত্রিসভায় পাশ হয়ে গিয়েছিল। বিজেপি সরকার চাইলে সেই কর্তৃপক্ষ তৈরির সিদ্ধান্তই কার্যকর করতে পারত। অধীরের মতে, “এ ভাবে রেল বাজেটের আগে ভাড়া না বাড়িয়ে বিষয়টি রেল রেগুলেটরি অথরিটির উপর ছেড়ে দিয়ে তাদের মত অনুযায়ী করা উচিত ছিল।”

আরও পড়ুন

Advertisement