Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

গৌতমের তালুকে হানা আজমলের

ঢাক-ঢোল পিটিয়ে বরাক কংগ্রেসের ঘরে হানা দিতে চলেছেন বদরউদ্দিন আজমল! আগামী কাল হাইলাকান্দিতে ‘সারা ভারত সংযুক্ত গণতান্ত্রিক মোর্চা’ বড় অনুষ্ঠ

অমিত দাস
হাইলাকান্দি ২৭ মে ২০১৫ ০৩:০০
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

ঢাক-ঢোল পিটিয়ে বরাক কংগ্রেসের ঘরে হানা দিতে চলেছেন বদরউদ্দিন আজমল!

আগামী কাল হাইলাকান্দিতে ‘সারা ভারত সংযুক্ত গণতান্ত্রিক মোর্চা’ বড় অনুষ্ঠান করে কংগ্রেস ছেড়ে আজমল শিবিরে যোগ দেওয়া নেতাদের বরণ করবে। সে জন্য এখন এআইইউডিএফ শিবিরে তৎপরতা তুঙ্গে। লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই বরাক কংগ্রেসে পরিস্থিতি খারাপ। এআইইউডিএফ-এর পালে অবশ্য হাওয়া ঘুরেছে। আগামী কাল লক্ষ্মিরবন্দের মাঠে ওই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে সদলবলে হাজির থাকবেন বদরউদ্দিন আজমল। নেতাদের জন্য বিশেষ বরণ-মালা তৈরি করা হয়েছে। হাইলাকান্দি জেলা এআইইউডিএফ সভাপতি নুরুল হক মজুমদার জানিয়েছেন, বিধায়ক গৌতম রায়ের ঘনিষ্ঠ জেলা কংগ্রেসের দুই নেতা ও জেলা পরিষদ সদস্য সুজামউদ্দিন লস্কর, নিজামউদ্দিনকে বরণ করে তাঁদের দলীয় সদস্যপদ দেবেন স্বয়ং আজমল। ওই অনুষ্ঠানে সুজাম ও নিজামের সঙ্গেই এআইইউডিএফ-এ যোগ দেবেন তাঁদের কয়েক হাজার সমর্থক। নুরুল হক আরও জানান, গৌতমবাবুর পত্নী মন্দিরা রায়ের খাসতালুক আলগাপুরে বরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে কংগ্রেসকে চ্যালেঞ্জ জানাতেই। বিধায়ক গৌতমবাবুর তিন দশকের কেন্দ্র কাটলিছড়ার বাসিন্দা সুজামউদ্দিন। তাঁর বাবা তজমুল আলি লস্কর এক সময় কাটলিছড়া থেকে বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০০১ সালে গৌতমবাবুর বিরুদ্ধে নির্দল প্রার্থী হিসেবে ভোট লড়েছিলেন সুজামউদ্দিনও। পরে তিনি কংগ্রেসে যোগ দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পান। জেলা কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক মনোনীত হওয়া ছাড়াও, জেলা পরিষদ সদস্যও হয়েছিলেন। পরিষদে জায়গা পান তাঁর স্ত্রী ফারহানা বেগমও।

কয়েক দিন আগে কংগ্রেসের সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ করেন সুজাম। দল ছাড়ার কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে তিনি বলেছিলেন, ‘‘এই দলে গণতন্ত্র নেই। গৌতম রায়ের কথাই শেষ কথা।’’ ২০১৬ সালের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে কাটলিছড়া কেন্দ্রেই লড়াইয়ের কথা ঘোষণা করেছিলেন সুজামউদ্দিন। একই ভাবে গৌতম-পত্নী মন্দিরাদেবীর তালুক আলগাপুরের পাচগ্রামের প্রভাবশালী কংগ্রেস নেতা নিজামুদ্দিনও এআইইউডিএফ শিবিরে যোগ দেওয়ায় হাইলাকান্দিতে আজমল শিবিরের শক্তি বাড়তে পারে। নিজামউদ্দিন বলেন, ‘‘হাইলাকান্দিতে কংগ্রেসের ভবিষ্যৎ নেই। এখানে কংগ্রেসকে লোকে ঘৃণা করেন। কংগ্রেসে থাকলে কোনও স্বপ্ন সফল হবে না।’’ নিজামউদ্দিনও আদামী বিধানসভা ভোটে আলগাপুর কেন্দ্র থেকে লড়াইয়ের কথা জানিয়ে দিয়েছেন। এআইইউডিএফ সূত্রে খবর, আগামী কাল ওই বরণ অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বদরউদ্দিন আজমল ছাড়াও উপস্থিত থাকবেন বসির আহমেদ কাসিমী, বিধায়ক স্বপন কর, বিধায়ক আব্দুল রহিম খান ও সাংসদ রাধেশ্যাম বিশ্বাস।

Advertisement


Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement