×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

এক লাফে ১৪৬৩ জনের নতুন সংক্রমণ দেশে, মৃত্যু বেড়ে ৩৪৬

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি১৪ এপ্রিল ২০২০ ১৮:২৫
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

লকডাউন ঘোষণার তিন সপ্তাহের মাথায় দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১০ হাজারের গণ্ডি ছাড়িয়ে গেল। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪৬৩ জনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে যা এখনও পর্যন্ত রেকর্ড। মোট আক্রান্ত ১০ হাজার ৮১৫ জন বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশ জুড়ে মৃত্যু হয়েছে ২৯ জনের। মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৪৬।

করোনা মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই দেশ জুড়ে নমুনা পরীক্ষা বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার সে কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও। গোটা দেশে ২২১টি ল্যাবরেটরিতে নমুনা পরীক্ষা চলছে বলে জানিয়েছেন মোদী। সেই কারণেই আক্রান্তের সংখ্যা এ ভাবে লাফিয়ে বাড়ছে বলেই মত বিশেষজ্ঞদের। 

দেশের মধ্যে মহারাষ্ট্র, দিল্লি ও তামিলনাড়ু, এই তিন রাজ্যের পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। মহারাষ্ট্রে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। সেখানে ২৩৩৭ জন সংক্রমিত। এর পরেই রয়েছে দিল্লি। সেখানে করোনা ধরা পড়েছে ১৫১০ জনের। তামিলনাড়ুতে ১,১৭৩ জন আক্রান্ত ধরা পড়েছেন।

Advertisement

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের হিসাব অনুযায়ী, এ রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৯০। যদিও নবান্নের দেওয়া হিসাব অনুযায়ী, এ রাজ্যে ‘অ্যাক্টিভ’ করোনা রোগী রয়েছেন ১১০ জন।



 

মহারাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যাও সবচেয়ে বেশি। সেখানে ১৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর পরেই রয়েছে মধ্যপ্রদেশ। সেখানে মারা গিয়েছেন ৪৩ জন। দিল্লিতে মৃতের সংখ্যা ২৮।

মঙ্গলবারই দেশে লকডাউন আরও ১৯ দিন অর্থাৎ ৩ মে পর্যন্ত বাড়ানোর ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এর মধ্যে দেশের যে সব এলাকায় হটস্পট তৈরি হয়েছে তা নিয়ে রাজ্যগুলিকে সতর্ক থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন: এমন যোগ্য শিক্ষক আর কোথায় পাব

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

Advertisement