Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

মোদীর পছন্দের দেবেন্দ্রই মুখ্যমন্ত্রী, উদ্ধব আরও চাপে

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি ২৯ অক্টোবর ২০১৪ ০৩:০৮

দলের অন্দরে তাবড় নেতাদের দৌড় সামলে দেবেন্দ্র ফডণবীসের নাম মহারাষ্ট্রের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে ঘোষণা করে দিল বিজেপি। পাশাপাশি চাপে রেখে দিল শিবসেনাকে। উদ্ধব ঠাকরের দলকে মন্ত্রিসভায় যোগ দেওয়ার আমন্ত্রণ জানিয়েও বিজেপি এ দিন বুঝিয়ে দিয়েছে, মন্ত্রিসভা হবে ছোট। বার্তাটি স্পষ্ট, পুরনো শরিককে ফের সঙ্গে নিতে রাজি থাকলেও তাদের কোনও রকম দর কষাকষির সুযোগ দিতে রাজি নন বিজেপি নেতৃত্ব। যে কারণে তাঁরা আজ ফের এটা বুঝিয়ে দিয়েছেন যে, বিজেপি আদৌ শিবসেনার সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করবে না। বিজেপি তার সময় মতো সরকার গড়ে ফেলবে, দরকারে একাই। বিশেষ করে বিধানসভায় সরকারের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের ক্ষেত্রেও যেখানে কোনও সমস্যা হওয়ার কথা নয় এনসিপি বাইরে থেকে সমর্থন জোগানোর কথা জানিয়ে রাখায়।

ভাবী মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঘোষণা শুধু নয়, রাজ্যপালের কাছে সরকার গড়ার দাবি পেশ করার আগেই বিজেপি নতুন মন্ত্রিসভার শপথের দিনও জানিয়েছে আজ। এটা আরও চাপ বাড়িয়েছে শিবসেনার উপরে। মাত্র ৪৪ বছর বয়সি দেবেন্দ্র সঙ্ঘের ঘনিষ্ঠ শুধু নয়, নাগপুরের এই নবীন নেতাটিকে নরেন্দ্র মোদী নিজে বেছে নেন আগেই। তাঁর নাম ঘোষণা করতে আজ দিল্লি থেকে দলের পর্যবেক্ষক হিসেবে মুম্বই উড়ে যান রাজনাথ সিংহ ও জগৎপ্রকাশ নাড্ডা। নাম ঘোষণার পর নাড্ডা বলেন, “শুক্রবার বিকেল সাড়ে চারটেয় মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ছোট মন্ত্রিসভা শপথ নেবে। আমরা চাইছি, শিবসেনাও সঙ্গে আসুক। তাদের সঙ্গে আলোচনা জারি থাকবে।”

বিজেপি সূত্রের খবর, প্রাথমিক ভাবে মহারাষ্ট্রে ২২ জনের মন্ত্রিসভা গঠনের কথা ভাবা হয়েছে। তার মধ্যে শিবসেনাকে ৫টি মন্ত্রক দেওয়ার প্রস্তাব রয়েছে। কিন্তু এখনও তাতে পূর্ণ সম্মতি জানাননি উদ্ধব ঠাকরে। তবে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য তাঁর হাতে সময় আর মাত্র দু’দিন।

Advertisement

উদ্ধবের কোর্টে এ ভাবে বল ঠেলার চেয়েও কঠিন কাজটা বিজেপি নেতৃত্বকে সারতে হয়েছে দলের অন্দরে। আজ দেবেন্দ্রর নাম ঘোষণার ঘণ্টা কয়েক আগেও বিজেপির প্রবীণ নেতা একনাথ খাড়সে নিজের নাম ভাসিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী পদের অন্যতম দাবিদার হিসেবে। ক’দিন আগে নিতিন গডকড়ীকে মুখ্যমন্ত্রী করার দাবিতে সরব হয়েছিলেন তাঁর ঘনিষ্ঠ নেতা সুধীর মাঙ্গাতিওয়ার। আর প্রয়াত গোপীনাথ মুন্ডের কন্যা পঙ্কজা তো ভোটের সময়েই নিজেকে দলের মুখ হিসেবে তুলে ধরেছিলেন। যাবতীয় কোন্দল মিটিয়ে শেষ পর্যন্ত অবশ্য দলের এই নেতাদের দিয়েই আজ দেবেন্দ্রর নাম প্রস্তাব ও সমর্থন করানো হয়। যাতে ভবিষ্যতে দেবেন্দ্রকে কোনও বেগ পেতে না হয়।

মহারাষ্ট্রে সব থেকে কম বয়সে নাগপুরের মেয়র হন দেবেন্দ্র। বর্তমানে তিনি দলের প্রদেশ শাখার সভাপতি। পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তাঁর নাম ঘোষণার পর দেবেন্দ্র এ দিন ধন্যবাদ জানান মোদী ও অমিত শাহকে। প্রতিশ্রুতি দেন দুর্নীতিমুক্ত সরকার দেওয়ার। কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদী ‘যে উন্নয়নের পথ দেখিয়েছেন’, সেই পথেই মহারাষ্ট্রকে পরিচালিত করার কথা বলেন রাজ্যের ভাবী মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুন

Advertisement