Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

বালাকোটে জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংসের যথেষ্ট প্রমাণ আছে, বলল ভারতীয় সেনা

পুলওয়ামা নাশকতা এবং তার পরবর্তী ভারত-পাক সীমান্তে উত্তেজনা নিয়ে এই মুহূর্তে সাংবাদিক বৈঠক করছেন স্থলবাহিনী প্রধান বিপিন রাওয়াত, বায়ুসেনা প্র

সংবাদসংস্থা
নয়াদিল্লি ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ১৯:০৬
সাংবাদিক বৈঠকে স্থলসেনা, বায়ুসেনা এবং নৌসেনা। নিজস্ব চিত্র।

সাংবাদিক বৈঠকে স্থলসেনা, বায়ুসেনা এবং নৌসেনা। নিজস্ব চিত্র।

কিছু ক্ষণ আগেই ভারতীয় বায়ুসেনার আটক উইং কম্যান্ডার অভিনন্দনকে ছেড়ে দেওয়ার কথা জানিয়েছে পাকিস্তান। অভিনন্দনকে যাতে ছেড়ে দেওয়া হয়, সেই জন্য পাকিস্তানের উপর কূটনৈতিক চাপ তৈরি করেছিল ভারত।

আন্তর্জাতিক দুনিয়া থেকেও অভিনন্দনকে ছেড়ে দেওয়া নিয়ে চাপ তৈরি করা হয়েছিল ইসলামাবাদের উপর। পাকিস্তানের তরফে জানানো হয়েছে, আগামিকালই ওয়াঘা সীমান্ত দিয়ে ভারতের মাটিতে পা রাখবেন অভিনন্দন।

এই পরিস্থিতিতে পুলওয়ামা নাশকতা এবং তার পরবর্তী সময়ে ভারত-পাক সীমান্তে উত্তেজনা নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেন স্থলবাহিনীর প্রতিনিধি মেজর জেনারেল সুরেন্দ্র সিংহ মহাল, বায়ুসেনার প্রতিনিধি এয়ার ভাইস মার্শাল আরজিকে কাপুর, এবং নৌসেনার প্রতিনিধি রিয়ার অ্যাডমিরাল ডিএস গুজরাল।

Advertisement

বালাকোট নিয়ে প্রশ্নের উত্তরে বায়ুসেনার প্রতিনিধি বলেন, তাঁদের কাছে জঙ্গিশিবির ধ্বংসের যথেষ্ট প্রমাণ রয়েছে। তাঁর মন্তব্য, ‘‘আমরা যে ভাবে যত টুকু ধ্বংস করতে চেয়েছি, তাতে আমরা সফল। তবে কত জন মারা গিয়েছে, তা এখনই বলা সম্ভব নয়। তবে শিবির ধ্বংসের তথ্যপ্রমাণ কোথায় কী ভাবে পেশ করা হবে, তা ঠিক করবে দেশের নেতৃত্বই।’ ‘পাকিস্তান বলেছিল বিমান হামলায় এফ-১৬ ব্যবহার করা হয়নি, কিন্তু আমাদের কাছে পর্যাপ্ত প্রমাণ রয়েছে ২৭ তারিখ সকালে পাকিস্তানের এফ-১৬ যুদ্ধবিমান ভারতের আকাশসীমায় ঢুকেছিল।’ প্রমাণ হিসেবে তাঁরা আকাশ থেকে আকাশ অ্যারাম ক্ষেপণাস্ত্রের একটি অংশ সাংবাদিকদের দেখান। বলেন, ‘ওই ক্ষেপণাস্ত্রের অংশটি পাওয়া গিয়েছে রাজৌরির পূর্বে। এই ক্ষেপণাস্ত্র এক মাত্র এফ-১৬ যুদ্ধবিমানই বহন করতে পারে।’



পাক যুদ্ধবিমান থেকে ছোড়া এই ক্ষেপণাস্ত্রই সাংবাদিক বৈঠকে দেখায় ভারতীয় সেনাবাহিনী।

‘সব কিছু নিয়েই আমাদের কাছে পর্যাপ্ত তথ্য প্রমাণ আছে, প্রয়োজনে সহ নথি সামনে আনা হবে।’ ‘পাকিস্তান প্ররোচনা দিলে ফের প্রত্যাঘাত করা হবে’ ‘পাক হামলায় আমাদের কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি’ সেনাবাহিনী দাবি করেছে, গত ২ দিনে ৩৫ বার সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘণ করেছে পাকিস্তান’ ‘ ভারতে এসে বোমা ফেলেছে পাক যুদ্ধবিমান’ ‘পাক যুদ্ধবিমানের টার্গেট ছিল ভারতের সেনাঘাঁটি। সুনির্দিষ্ট ভাবে ব্রিগেড হেডকোয়ার্টার, ব্যাটেলিয়ন হেডকোয়ার্টার এবং লজিস্টিকস ইনস্টলেশনে বোমা ফেলার চেষ্টা করেছে পাকিস্তান ’ ‘এখনও সংঘর্ষবিরতি করছে পাকিস্তান’ ‘ভুল এবং মিথ্যা তথ্য ছড়িয়েছে পাকিস্তান’ ‘বলা হয়েছিল, তিন বায়ুসেনা পাইলটকে ধরতে পেরেছে পাকিস্তান। এই তথ্য ইচ্ছাকৃত ভাবে ছড়িয়েছে পাকিস্তান’ ‘পাকিস্তান বলেছিল, দু’টি ভারতীয় বিমান ধ্বংস করেছে ওরা। এই তথ্যও সর্বৈব মিথ্যা।’

দেখুন লাইভ ভিডিয়ো


আরও পড়ুন

Advertisement