Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

পাঁচ মিনিটেই প্রধানমন্ত্রী ঠিক হয়ে যাবে, এবার ফর্মুলা দিলেন লালু

সংবাদ সংস্থা
পটনা ৩০ অগস্ট ২০১৮ ১৪:২১
পাঁচ মিনিটেই ঠিক হয়ে যাবে বিরোধী জোটের প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী, বললেন লালু। —ফাইল ছবি

পাঁচ মিনিটেই ঠিক হয়ে যাবে বিরোধী জোটের প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী, বললেন লালু। —ফাইল ছবি

বিরোধী জোটের প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী কে, ঠিক হয়ে যাবে পাঁচ মিনিটেই। এনসিপি-র শরদ পওয়ারের পর এবার ফর্মুলা বাতলালেন রাষ্ট্রীয় জনতা দল (আরজেডি) সুপ্রিমো লালুপ্রসাদ যাদব। পশুখাদ্য কেলেঙ্কারিতে সাজাপ্রাপ্ত লালু একটি সর্বভারতীয় টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকারে বলেন, ভোটের পর পাঁচ মিনিটেই প্রধানমন্ত্রী বেছে নেওয়া যাবে। অর্থাৎ এনসিপি প্রধানের মতোই লালুপ্রসাদও প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী আগে থেকে ঠিক করে ভোটে লড়ার পক্ষপাতী নন বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

বিরোধীদের প্রধানমন্ত্রী কে, এই প্রশ্ন তুলে বারবার আক্রমণ করছে বিজেপি। তার জবাবে দু’দিন আগে মঙ্গলবারই শরদ পওয়ার বলেছিলেন, বিরোধী শিবিরের কে প্রধানমন্ত্রী হবে, তা ঠিক হবে ভোটের পর সংখ্যার ভিত্তিতেই। অর্থাৎ যে দল সবচেয়ে বেশি আসন পাবে, সেই দল থেকেই প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন করা হবে।

এনসিপি প্রধানের পর এবার প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্নে নিজের টোটকা দিলেন বিহারের বর্ষীয়ান রাজনীতিক লালুপ্রসাদ । পশুখাদ্য কেলেঙ্কারির চারটি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত লালু বর্তমানে জেলবন্দি। সম্প্রতি চিকিৎসার জন্য প্যারোলে ছাড়া পান তিনি। প্যারোলে থাকাকালীন সর্বভারতীয় একটি টিভি চ্যানেলে প্রাক্তন রেলমন্ত্রী লালু বলেন, ভোটের পর সমমনোভাবাপন্ন দলগুলির বৈঠকে পাঁচ মিনিটেই প্রধানমন্ত্রী নির্ধারণ করা যাবে।

Advertisement

আরও পুড়ুন: রাফাল হুল সামলাতে আসরে জেটলি

সাক্ষাৎকারে বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ সাক্ষাৎকারে আরও বলেন, ‘‘পাঁচ বছর আগে যে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল এবং মোদী জমানায় তার কতটা পেলেন সাধারণ মানুষ, তার ভিত্তিতেই আসন্ন লোকসভা নির্বাচন হবে।’’ এই সরকার সব ক্ষেত্রেই ডাহা ফেল বলে মন্তব্য করে লালুর প্রশ্ন, ‘‘গোলপোস্ট পাল্টানো ছাড়া মোদী সরকার আর কী বদল আনতে পেরেছে!’’

লোকসভা ভোটের আর এক বছরও বাকি নেই। এনডিএ তথা মোদী সরকারের বিরুদ্ধে একজোট হওয়ার চেষ্টা করছে বিরোধী দলগুলি। কংগ্রেস, তৃণমূল, সমাজবাদী পার্টি, বহুজন সমাজ পার্টি, তেলুগু দেশম পার্টির মতো দলগুলি মোদী বিরোধী প্রচারে এককাট্টা।

আরও পড়ুন: সঙ্ঘকে ফের তির রাহুলের, যুদ্ধ টুইটারেও

বিরোধীরা অসংগঠিত। নিজের নিজের রাজ্যের স্বার্থরক্ষায় বেশি মনোযোগী। প্রধানমন্ত্রীর দাবিদার নিয়ে সংঘাত রয়েছে—এই সব প্রশ্ন তুলে পাল্টা আক্রমণ করছে বিজেপিও। রাজ্যসভার ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচনে বিরোধীদের হেরে যাওয়ার প্রসঙ্গ তুলেও তোপ আসছে শাসক শিবির থেকে। এই পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর পদ নিয়ে লালুপ্রসাদের এই দাওয়াই এবং মোদী সরকারের ব্যর্থতার প্রসঙ্গ তুলে ধরা তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

(ভারতের রাজনীতি, ভারতের অর্থনীতি- সব গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে আমাদের দেশ বিভাগে ক্লিক করুন।)

আরও পড়ুন

Advertisement