Advertisement
৩০ জানুয়ারি ২০২৩

রেল রোকোর হুমকি দিল যাত্রী সংগঠন

লোয়ার হাফলং স্টেশনের কমপিউটারাইজড টিকিট বুকিং ব্যবস্থা ৩১ অক্টোবরের মধ্যে ঠিক করা না হলে রেল রোকো আন্দোলনের হুমকি দিল রেলওয়ে প্যাসেঞ্জার অ্যামেনিটিস এসোসিয়েশন।

নিজস্ব সংবাদদাতা
হাফলং শেষ আপডেট: ৩০ অক্টোবর ২০১৬ ০২:৫৭
Share: Save:

লোয়ার হাফলং স্টেশনের কমপিউটারাইজড টিকিট বুকিং ব্যবস্থা ৩১ অক্টোবরের মধ্যে ঠিক করা না হলে রেল রোকো আন্দোলনের হুমকি দিল রেলওয়ে প্যাসেঞ্জার অ্যামেনিটিস এসোসিয়েশন। এক মাসেরও বেশি সময় ধরে লামডিং-শিলচর সাবেক মিটারগেজ রেললাইনের লোয়ার হাফলং স্টেশনে থাকা পিআরএস ব্যবস্থা বিকল হয়ে পড়েছে। তার জেরে রেলযাত্রীরা আসন সংরক্ষণ করতে পারছেন না। এ নিয়ে হাফলংয়ের সংগঠনগুলি রেল কর্তৃপক্ষেকে স্মারকলিপিও দিয়েছে। অভিযোগ, রেল কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে উদাসীন।

Advertisement

গত বছর ২১ নভেম্বর থেকে লামডিং-শিলচর ব্রডগেজে যাত্রী-ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত রেলযাত্রীদের রিজার্ভেশন ব্যবস্থা রাখা হয়েছে হাফলং থেকে ৫ কিলোমিটার দূরে, মিটারগেজ রেললাইনের পরিত্যক্ত লোয়ার হাফলং স্টেশনেই। দীর্ঘ দিন থেকে বিভিন্ন সংগঠন লোয়ার হাফলং থেকে পিআরএস ব্যবস্থা তুলে হাফলং শহরে বা নিউ হাফলং স্টেশনে বসানোর দাবি করছে। রেল কর্তারা তাতে কান দেয়নি। এমনকী প্রায়ই লোয়ার হাফলং স্টেশনের পিআরএস ব্যবস্থা বিকল থাকছে। অভিযোগ, পরিত্যক্ত স্টেশন হওয়ায় কেবল্ চুরি হয়ে যাচ্ছে। লিঙ্ক থাকছে না মাসের পর মাস।

রেলওয়ে প্যাসেঞ্জার অ্যামেনিটিস এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কে এল চক্রবর্তী উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের জেনারেল ম্যানেজারের কাছে একটি স্মারকলিপি পাঠান। তিনি জানান, এ ব্যাপারে রেল প্রশাসন সম্পূর্ণ উদাসীন। তাই আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে যদি রেল কর্তৃপক্ষ ওই পিআরএস ব্যবস্থা ঠিক না করে তাহলে তাঁরা রেল রোকো আন্দোলন শুরু করবেন।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.