Advertisement
২৯ নভেম্বর ২০২২
Gujarat

পঞ্জাব জেল থেকে বরাত দেওয়া হয়েছিল পাকিস্তানে? গুজরাতে বাজেয়াপ্ত হওয়া ২০০ কোটির মাদক ঘিরে রহস্য

বুধবার গুজরাতের কচ্ছ জেলার জাখাউ বন্দর থেকে ৩৩ নটিক্যাল মাইল দূরে ৪০ কেজি মাদকসমেত ‘আল তায়াসা’ নামে পাকিস্তানিদের নৌকাটি আটক করে উপকূলরক্ষী বাহিনী এবং গুজরাতের সন্ত্রাসদমন শাখা।

গুজরাতে উদ্ধার হওয়া মাদক। ছবি: পিটিআই।

গুজরাতে উদ্ধার হওয়া মাদক। ছবি: পিটিআই।

সংবাদ সংস্থা
চণ্ডীগড় শেষ আপডেট: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৮:২৩
Share: Save:

পঞ্জাব জেলের ভিতর থেকেই বরাত দেওয়া হয়েছিল ২০০ কোটি টাকার মাদক? অন্তত তেমনই দাবি করছে গুজরাত সন্ত্রাসদমন শাখার একটি সূত্র।

Advertisement

ওই সূত্রের দাবি, পঞ্জাব জেলে বন্দি এক বিদেশিই নাকি পাকিস্তানে এই বিপুল পরিমাণ মাদকের বরাত দিয়েছিলেন। পাকিস্তান থেকে গুজরাত হয়ে সেই মাদক পঞ্জাবে পাচার করা হচ্ছিল। কিন্তু তার আগেই উপকূলরক্ষী বাহিনী এবং গুজরাত সন্ত্রাসদমন শাখার হাতে ধরা পড়ে যান ছয় পাকিস্তানি নাগরিক।

বুধবার গুজরাতের কচ্ছ জেলার জাখাউ বন্দর থেকে ৩৩ নটিক্যাল মাইল দূরে ৪০ কেজি মাদকসমেত ‘আল তায়াসা’ নামে পাকিস্তানিদের নৌকাটি আটক করে উপকূলরক্ষী বাহিনী এবং গুজরাতের সন্ত্রাসদমন শাখা।

উপকূলরক্ষী বাহিনীর এক পদস্থ আধিকারিক সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, পাকিস্তান থেকে আসা এই নৌকাটি গুজরাতের কোনও বন্দরে মাদক নামিয়ে ফিরে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিল। তার পর সেই মাদক সড়কপথে গুজরাত থেকে পঞ্জাবে পৌঁছে যেত।

Advertisement

এর আগেও একাধিক বার গুজরাত উপকূল দিয়ে মাদক পাচারের চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু উপকূলরক্ষী বাহিনী সেই চেষ্টা পণ্ড করে দেয়। ২০২১ সালের অক্টোবরে মুন্দ্রা বন্দরে প্রায় ৩ হাজার কেজি মাদক উদ্ধার হয়। যার মূল্য ছিল ২১ হাজার কোটি টাকা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.