Advertisement
৩০ নভেম্বর ২০২২
National news

রাজস্থানের স্কুল বইয়ে তিলক ‘সন্ত্রাসবাদের পিতা’!

এর পরেই ঐতিহাসিক ভুল। ‘সশস্ত্র আন্দোলন’-এর জায়গায় লেখা হল ‘সন্ত্রাসবাদ’। আর বাল গঙ্গাধর তিলক হয়ে গেলের ‘ফাদার অব টেররিজম’ অর্থাত্‌ ‘সন্ত্রাসবাদের পিতা’।

প্রতীকী চিত্র।

প্রতীকী চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
জয়পুর শেষ আপডেট: ১৩ মে ২০১৮ ০৯:৫৮
Share: Save:

ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামীদের মধ্যে তিনি অন্যতম। কিন্তু বিজেপি শাসিত রাজস্থানের স্কুল বইয়ে সেই বাল গঙ্গাধর তিলক হয়ে গেলেন ‘ সন্ত্রাসবাদের পিতা’। বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে। শিক্ষাবিদরাও সরব। কিন্তু সমস্যা হল, ছাত্র ছাত্রীদের সেই ভুল শিখে এখনও উগড়ে দিতে হচ্ছে পরীক্ষার খাতায়।

Advertisement

জানা গিয়েছে, রাজস্থানের বোর্ড অব সেকেন্ডারি এডুকেশনের আওতায় থাকা বিভিন্ন ইংরেজি মাধ্যম স্কুলের অষ্টম শ্রেণিতে ওই বই পড়ানো হয়। ‘অষ্টাদশ থেকে উনবিংশ শতাব্দীর মধ্যে ভারতের জাতীয়তাবাদী আন্দোলন’ নামের অধ্যায়ে লেখা হয়েছে, ‘‘আবেদন-নিবেদনের মধ্যে দিয়ে যে ব্রিটিশদের কাছ থেকে কিছু পাওয়া যাবে না, সেটা তিলক বুঝতে পেরেছিলেন। তিনি জাতীয়তাবাদী আন্দোলনে নতুন পথের সূচনা করেছিলেন।’’ এর পরেই ঐতিহাসিক ভুল। ‘সশস্ত্র আন্দোলন’-এর জায়গায় লেখা হল ‘সন্ত্রাসবাদ’। আর বাল গঙ্গাধর তিলক হয়ে গেলের ‘ফাদার অব টেররিজম’ অর্থাত্‌ ‘সন্ত্রাসবাদের পিতা’।

ইতিহাসবিদরা বিষয়টির বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন। রাজস্থান বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক বি এল গুপ্তর কথায়, ‘‘এই ভুল মেনে নেওয়া যায় না।’’

আরও পড়ুন: নেহরু নন, দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী!

Advertisement

আরও পড়ুন: রামায়ণেও প্রযুক্তির ব্যবহার ছিল, দাবি পঞ্জাবের রাজ্যপালের

এত কাণ্ডে পরেও কিন্তু বইটি বাজার থেকে তুলে নেওয়া হয়নি। তবে প্রকাশকের তরফ থেকে পরবর্তী সংস্করণে ভুল সংশোধনের প্রতিশ্রতি দেওয়া হয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.