বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল। শনিবার এক বিধ্বংসী বোমা বিস্ফোরণে সেখানে মৃত্যু হয়েছে অন্তত ৬৩ জনের। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে।আহতের সংখ্যা অন্তত ১৮২। আততায়ীরা বিস্ফোরণের জন্যে একটি বিয়েবাড়িকে বেছে নিয়েছিল। কোনও জঙ্গিগোষ্ঠীই এখনও পর্যন্ত এই বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করেনি।

প্রশাসনের তরফে সরকারি মুখপাত্র নাসরাত রহিমি জানিয়েছেন, পশ্চিম কাবুলে এক বিয়েবাড়িতে শনিবার স্থানীয় সময় রাত দশটা চল্লিশ মিনিট নাগাদ এই বিস্ফোরণটি ঘটে। আহতদের মধ্যে বহু শিশুও রয়েছে বলে জানান তিনি।
ঘটনার এক প্রত্যক্ষদর্শী মহম্মদ ফারাগ স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘‘কেউ কিছু বোঝার আগেই গোটা এলাকাটা কেঁপে ওঠে। প্রাণে বাঁচার জন্যে হুড়োহুড়ি পড়ে যায়। পাগলের মতো আর্তনাদ করছিল সকলে। গোটা হল প্রায় ২০ মিনিট ধোঁয়ায় ঢেকে যায়। বিস্ফোরণের দু’ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও মৃতদেহ উদ্ধার শেষ হয়নি।’’ গোটা ঘটনার কড়া নিন্দা করেছেন কাবুল। সরকারি মুখপাত্র ফিরোজ বাসরি টুইট বার্তায় লিখেছেন,‘‘জঙ্গিরা আফগানদের সুখী দেখতে পারে না। কিন্তু এভাবে মানুষ মেরে আমাদেরথেকে কিছু আদায় করা যাবে না।’’

 


আরও পড়ুন: মার্কিন ধাক্কা ইমরানকে, আবার ছাঁটাই ৪৪ কোটি ডলার সাহায্য 
আরও পড়ুন: ব্যবসায় রাজি, কিন্তু বিক্রি হব না: গ্রিনল্যান্ড 



আফগানিস্তানে গত কয়েক বছরে জঙ্গিদের লক্ষ্য হয়ে উঠেছে আনন্দ অনুষ্ঠানগুলিই। নিরাপত্তার কড়াকড়ি কম থাকায় এই জায়গাগুলিকে বেছে নেয় জঙ্গিরা। গত ১২ জুলাই পূর্ব আফগানিস্তানের নানগর এলাকায়ও আত্মঘাতী জঙ্গিরা একটি বিয়েবাড়িকেই বেছে নেয়। প্রাণ যায় ছয় জনের।