• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

লকডাউন উঠছে না, কাজে ফিরে জানালেন জনসন

Boris Johnson
করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে কাজে যোগ দেওয়ার আগে ১০, ডাউনিং স্ট্রিটে সাংবাদিকদের মুখোমুখি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। এএফপি

প্রায় দু’সপ্তাহ আগে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছিলেন। গতকাল রাতে ১০, ডাউনিং স্ট্রিটে ফিরেছেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। কাজে যোগ িদয়ে প্রথমেই জানিয়ে দিলেন, আপাতত লকডাউন তোলার কথা ভাবছে না তাঁর সরকার। 

করোনা-আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন বরিস। শ্বাসকষ্ট হওয়ায় বেশ কয়েক দিন আইসিইউতেও থাকতে হয়েছিল তাঁকে। কিছু দিন আগে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে চেকার্সে নিজের বাড়িতে ফিরেছিলেন তিনি। গতকাল রাতে ফেরেন সরকারি বাসভবন ১০, ডাউনিং স্ট্রিটে। আজ, সোমবার থেকে কাজে যোগ দিলেন তিনি। 

১০ ডাউনিং স্ট্রিটের বাইরে দাঁড়িয়ে আজ প্রথমেই সরকারের নির্দেশ মেনে এক মাস ‘গৃহবন্দি’ থাকার জন্য ব্রিটেনের মানুষকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বরিস। অনেক দিন ছুটিতে থাকার জন্য দেশবাসীর কাছে ‘ক্ষমা’ও চেয়েছেন। বলেছেন, ‘‘এত দিন কাজ না-করাটা আমার স্বভাববিরুদ্ধ।’’ তাঁর বক্তব্য, অল্প কিছু দিনের মধ্যেই করোনাভাইরাসকে কাবু করতে পারবে তাঁর দেশ। তবে দেশে এখনই লকডাউন তোলার মতো পরিস্থিতি নেই। তাঁর কথায়, , ‘‘জানি এটা কঠিন। যত দ্রুত সম্ভব অর্থনীতিকে সচল করার চেষ্টা করছি। কিন্তু তা করতে গিয়ে দ্বিতীয় দফায় সংক্রমণ মাথাচাড়া দিলে ব্রিটেনের মানুষের এত দিনের চেষ্টা জলে যাবে।’’ বরিস জানান, দেশে মৃতের সংখ্যা ২০ হাজার ছাড়িয়েছে। সংক্রমণের ধাক্কা আগের তুলনায় কমলেও তাঁদের লক্ষ্য এখন দ্বিতীয় দফায় করোনার ফিরে আসা রোখা। তাঁর কথায়, ‘‘সবে সংক্রমণকে আয়ত্তে আনতে শুরু করেছি। এখনই যদি  হাল ছেড়ে দিই, সমূহ বিপদের আশঙ্কা।’’ দেশবাসীর প্রতি তাঁরবার্তা, ‘‘আপনারা অনেক দিন ধরে কষ্ট করছেন। আর একটু ধৈর্য্য ধরুন।’’

আরও পড়ুন: ব্রিটেনে ভারতীয়দের করোনায় মৃতের সংখ্যা ঊর্ধ্বমুখী, আশঙ্কায় প্রবাসীরা

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন