• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘হলুদ ঝড়’ বন্ধ করতে কর ছাড়ের আশ্বাস মাকরঁর

Macron
সাংবাদিকদের মুখোমুখি ইমানুয়েল মাকরঁ। রয়টার্স

সপ্তাহ শেষ হতেই প্যারিসের রাস্তায় ‘হলুদ ঝড়’। গত ছ’মাস ধরে এটাই চেনা ছবি হয়ে গিয়েছিল। দীর্ঘ ‘ইয়েলো ভেস্ট’ আন্দোলনের পরে অবশেষে মুখ খুললেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাকরঁ। আশ্বাস দিলেন দেশবাসীর দাবি মতো আয়কর কমানো হবে, বাড়ানো হবে পেনশন। সেই সঙ্গে সরকারি পরিষেবাতেও প্রয়োজনীয় সংস্কার করা হবে। কিন্তু তাঁর দাবি, পড়শি দেশগুলোর তুলনায় ফরাসিরা কম কাজ করেন। তাঁদের আরও বেশি করে কাজ করতে হবে। 

মূলত জ্বালানির লাগামছাড়া মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধে গত বছর নভেম্বর মাস থেকে শুরু হয়েছিল ইয়েলো ভেস্ট আন্দোলন। ক্রমশ আন্দোলনের চেহারা বদলায়। ফরাসি সমাজে আর্থিক বৈষম্য নিয়ে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে গোটা দেশে। অবশেষে নরম হলেন মাকরঁ। যদিও জানিয়েছেন, সাধারণ মানুষের দাবিমতো করছাড় সংক্রান্ত পদক্ষেপ করবে সরকার, তবে ফরাসিদেরও এগিয়ে আসতে হবে। 

গত ১৫ এপ্রিলই ইয়েলো ভেস্ট আন্দোলন নিয়ে এই সাংবাদিক বৈঠক করার কথা ছিল মাকরঁ-র। কিন্তু নত্রো দাম ক্যাথিড্রালে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তা পিছিয়ে যায়। আজ মুখোমুখি হন সাংবাদিকদের। এক সময়ে ইনভেস্টমেন্ট ব্যাঙ্কার হিসেবে কাজ করেছেন ৪১ বছর বয়সি মাকরঁ। ২০১৭ সালে ফরাসি প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচিত হন। কিন্তু তার পর থেকে বারবারই ‘ধনীদের প্রেসিডেন্ট’ বলে আক্রমণের মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে। আজ তিনি জানান, আয়করে বেশকিছু কাটছাঁট করা হবে। কিছু কিছু সংস্থা নিয়মের ফাঁক গলে আয়কর ছাড় উপভোগ করে। এ বার তাদের আটকানো হবে বলেও জানান। সেই সঙ্গে সরকারি খরচ কমানো হবে। কিন্তু ফরাসি কর্মীদের দিনপ্রতি আরও বেশ কাজ করতে হবে। 

এমনিতেই এই মুহূর্তে বাজেট ঘাটতির সঙ্গে লড়ছে ফ্রান্স। তাতে করছাড়ের পরিমাণ ৫০০ কোটি ইউরো ছোঁবে বলে জানিয়েছেন। মাকরঁ বলেন, ‘‘আমাদের আরও কাজ করতে হবে। আগেও বলেছি। পড়শি দেশগুলোর তুলনায় ফ্রান্সের মানুষ অনেক কম কাজ করেন। এ নিয়ে সত্যিই আরও আলোচনা হওয়া দরকার।’’ 

ছ’মাস ব্যাপী দীর্ঘ আন্দোলন প্রসঙ্গে প্রেসিডেন্ট জানান, গণতান্ত্রিক পরিকাঠামো আরও সুসংহত করতে তিনি চান সাধারণ মানুষ আরও বেশি করে এগিয়ে আসুন। তাতে সরকার পরিচালনাও অনেক বেশি সহজ হবে। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন