হ্যাঁ, ১৬ বছর বয়সের ছেলেটির সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছেন ‘অ্যাপল’-এর চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার (সিইও) টিম কুক। ছেলেটিকে ডাকা হয়েছে সানফ্রান্সিসকোয়, ‘অ্যাপলে’র ‘ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ডেভেলপার কনফারেন্সে’। যাওয়া-আসা, থাকা-খাওয়া, ঘুরে বেড়ানোর কোনও খরচই দিতে হবে না ১৬ বছর বয়সের ছেলেটিকে। তার জন্য সবটাই ফ্রি!

কেন?

কারণ, ১৬ বছর বয়সের ঈশান প্রসাদ সবাইকে চমকে দিয়েছে। এইটুকু বয়সেই তাকলাগানো একটি অ্যাপ বানিয়ে।ঈশানের মতো অন্যান্য দেশের ৩৫০ ‘বিস্ময় বালক’ যে তাকলাগানো অ্যাপগুলি বানিয়েছে, তা নিয়ে গত সপ্তাহে একটি প্রদর্শনী শুরু করেছে অ্যাপলের অ্যাপ স্টোর। যার নাম দেওয়া হয়েছে, ‘টোয়েন্টি আন্ডার টোয়েন্টি’। ৩৫০ ‘বিস্ময় বালক’কে দেওয়া হয়েছে একই অফার। সকলের সঙ্গেই দেখা করবেন অ্যাপলের সিইও টিম কুক। ভারতীয় বংশোদ্ভূত ঈশান পড়াশোনা করছেন আমেরিকাতেই।

আরও পড়ুন- পৃথিবীর ২৫ হাজার গুণ বড় গ্রহের সন্ধান দিলেন বাঙালি বিজ্ঞানীরা

ঈশান বলেছেন, ‘‘১২ বছর বয়সেই নতুন নতুন অ্যাপ বানাতে শুরু করি আমি। নিউরোথোরাক্স রোগে দীর্ঘ দিন ধরে ভোগার পর ওই সময় মাকে ভর্তি করানো হয়েছিল হাসপাতালে। সব সময় নিজেকে খুব একা লাগত। কী ভাবে সময় কাটাব, বুঝতে পারছিলাম না। তখনই অ্যাপ বানাতে শুরু করি। এখনও পর্যন্ত বানিয়েছি ৫টি অ্যাপ। যা ৭৫টি দেশে ৫৫ হাজারেরও বেশি ডাউনলোড হয়েছে।’’