তেরো বছরের এক কিশোরীর খুনের ঘটনায় অন্যতম সন্দেহভাজন তিনি। পুলিশের কাছে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড না বলতে চাওয়ায় ১৪ মাসের জেল হল স্টিফেন নিকোলসন নামে ওই ব্রিটিশ ব্যক্তির।

পুলিশ জানিয়েছে, গত ২৬ জুলাই ছুরিবিদ্ধ হয়ে মারা যায় লুসি ম্যাকহাগ নামের ওই কিশোরী। সেই ঘটনায় অন্যতম সন্দেহভাজন হিসেবে নাম উঠে আসে স্টিফেনের। তদন্তকারীরা জানাচ্ছেন, ‘রেগুলেশন অব ইনভেস্টিগেটরি পাওয়ার্স’ (আরআইপিএ) আইনের আওতায় দোষী সাব্যস্ত হন স্টিফেন। এই আইন অনুযায়ী, তদন্তকারীরা যদি মনে করেন, কোনও অপরাধের তদন্তের জন্য অভিযুক্ত ব্যক্তির সোশ্যাল মিডিয়া বা অন্য কোনও ইলেকট্রনিক যন্ত্রের পাসওয়ার্ড প্রয়োজন, তা হলে অভিযুক্ত তা দিতে বাধ্য। অন্যথা দুই থেকে পাঁচ বছরের জেল পর্যন্ত হতে পারে তাঁর। এ ক্ষেত্রে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড পুলিশকে জানাতে চাননি স্টিফেন। অথচ পুলিশের বক্তব্য, তিনি ওই পাসওয়ার্ডটি জানালে কিশোরী খুন সংক্রান্ত অনেক তথ্যই তাদের হাতে চলে আসতে পারত।

একটি ব্রিটিশ আইনি পরামর্শদাতা সংস্থা জানাচ্ছে, অনেক ক্ষেত্রেই গুরুতর অপরাধে অভিযুক্ত ব্যক্তিরা লঘু সাজা পাওয়ার জন্য আরআইপিএ-তে অভিযুক্ত হওয়া সত্ত্বেও নিজের ব্যক্তিগত পাসওয়ার্ড পুলিশকে জানাতে চান না। কারণ ওই পাসওয়ার্ড থেকে পাওয়া তথ্য পুলিশের হাতে গেলে আরও গুরুতর অপরাধে অভিযক্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। এই মামলায় স্টিফেনের বিরুদ্ধে অন্য ধারায় অভিযোগ আনা যায় কি না, তা আগামী অক্টোবরের শুনানিতে স্পষ্ট হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।