ভয়ঙ্কর টার্বুলেন্সের মুখে পড়ল একটি নিউ ইয়র্কগামী বিমান। আহত হলেন অন্তত ৩০ জন। শনিবার ঘটনাটি ঘটেছে অতলান্তিক মহাসাগরের উপরে।

সূত্রের খবর, তুরস্ক এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৭৭ বিমানটি ইস্তানবুল থেকে নিউ ইয়র্ক যাচ্ছিল। বিমানে ২১ বিমানকর্মী এবং ৩২৬ যাত্রী ছিলেন। গন্তব্যস্থল নিউ ইয়র্ক জন এফ কেনেডি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছনোর মাত্র ৪৫ মিনিট আগে অতলান্তিক মহাসাগরের উপরে ভয়ঙ্কর টার্বুলেন্সের মুখে পড়ে বিমান। টার্বুলেন্সের আঘাতে যাত্রীদের অনেকেই চোট পান। বিমানের যন্ত্রের কোনও ক্ষতি না হওয়ায় নিরাপদে যাত্রীদের নিয়ে নিউ ইয়র্ক বিমানবন্দরে অবতরণ করে বিমানটি। সমস্ত জখম যাত্রীদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে।

কিছু দিন আগেও নিউ ইয়র্কের কাছে কানাডার একটি বিমানে যান্ত্রিক গোলযোগ দেখা যায়। বিমানে ধোঁয়া দেখা যায়। যার ফলে বিমানটিকে জরুরি অবতরণ করাতে হয়। সে ক্ষেত্রেও কোনও প্রাণহানি ঘটেনি।

আরও পড়ুন: ফের আকাশে বিপর্যয়, ১৫৭ জনকে নিয়ে ভেঙে পড়ল ইথিওপিয়ার যাত্রীবিমান

আরও পড়ুন: মোদীকে দেখতে জঙ্গির মতো! বিতর্কিত মন্তব্য কংগ্রেস নেত্রীর

টার্বুলেন্স কী?

এক কথায় বললে আচমকা হাওয়ার গতিপথের পরিবর্তন। বিভিন্ন কারণে এটা হয়ে থাকে। বিমানের গতিপথের রাস্তায় কোনও উঁচু পর্বত বা বাড়ি থাকলে আচমকা হাওয়ার অভিমুখের পরিবর্তন হতে পারে। এমন পরিস্থিতির মধ্যে পড়লে বিমান খুব দ্রুত ১০০ ফুট পর্যন্ত নেমে বা উঠে যেতে পারে। প্রচণ্ড ঝাঁকুনি অনুভব করেন যাত্রীরা। অনেক সময় অভিমুখে এগিয়ে যেতেও বাধাপ্রাপ্ত হয় বিমান।

আবার তাপমাত্রা খুব বেড়ে গেলে, বায়ু হালকা হয়ে উপরে উঠতে শুরু করে, তখনও টার্বুলেন্সের সৃষ্টি হয়ে পারে।