তৃতীয় বারের জন্য নীরব মোদীর জামিনের আর্জি খারিজ করল ব্রিটেনের আদালত।  সেই সঙ্গে ২৪ মে পর্যন্ত তাঁর পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিলেন বিচারক। শুক্রবার ওয়ান্ডসওয়ার্থের জেল থেকে ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে মামলার শুনানি হয়। এবং তা খুব অল্প সময়ের জন্য।

শুনানি চলাকালীন বিচারপতি বলেন, “আগামী ২৪ মে ফের ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে শুনানি হবে।” পাশাপাশি বিচারপতি এও জানান, আগামী ৩০ মে পূর্ণ সময়ের শুনানির পরিকল্পনা চলছে। তখন তাঁকে সশরীরে আদালতে হাজির করানো হবে। গত ২৯ মার্চও জামিনের আবেদন করেছিলেন নীরব। সে সময়েও তাঁর আবেদন খারিজ হয়ে যায়।

গত ৯ মার্চ নীরবের একটি ভিডিয়ো সামনে আসে। দ্য টেলিগ্রাফ তাদের রিপোর্টে জানায়, লন্ডনে হিরের ব্যবসা করছেন নীরব। সেই ভিডিয়ো সামনে আসার পরই ওয়েস্টমিনস্টার আদালত নীরবের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে। ভারত সরকারের আবেদনের ভিত্তিতে গত ১৯ মার্চ লন্ডনে গ্রেফতার করা হয় নীরব মোদীকে। তার পর থেকেই নীরবের ঠিকানা দক্ষিণ-পশ্চিম লন্ডনের ওয়ান্ডসওয়ার্থ জেল।

গত বছরে পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কে ১৩ হাজার ৭০০ কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগ ওঠে নীরবের বিরুদ্ধে। তার পর থেকেই ফেরার তিনি। তাঁর প্রত্যর্পণের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ভারত সরকার।

আরও পড়ুন: রোলস রয়েস থেকে পোরশে, নিলামে নীরব-চোক্সীর বিলাসবহুল গাড়ি

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯