চাপের মুখে পাকিস্তান সুর নামাতে বাধ্য হয়েছে বলে জানালেন আমেরিকার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন। গত কাল সন্ত্রাস দমন প্রসঙ্গে পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশির সঙ্গে ফোনে কথা হয়েছে তাঁর। সেই সূত্রে বোল্টন আজ টুইট করেন, ‘‘পাকিস্তান থেকে বিশ্বে হামলা চালিয়ে যাওয়া জঙ্গিদের কড়া হাতে মোকাবিলা করবে বলে কথা দিয়েছে ইসলামাবাদ। ভারতের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়তে নতুন করে চেষ্টারও আশ্বাস দিয়েছে তারা।’’

বিদেশসচিব বিজয় গোখলে  গত কাল মার্কিন বিদেশসচিব মাইক পম্পেয়োর সঙ্গে পুলওয়ামা-বালাকোট প্রসঙ্গে কথা বলেছেন। তার পরই পাকিস্তানের এই সুর-বদল নিয়ে বোল্টনের ওই টুইটকে অর্থবহ মনে করা হচ্ছে। ওয়াশিংটন সূত্রে খবর, বোল্টনের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে ফের বালাকোট প্রসঙ্গ পাড়েন কুরেশি। ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে ছেড়ে দিয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান শান্তির বার্তা দিয়েছেন বলে দাবি করেন তিনি। কিন্তু পম্পেয়ো-গোখলের আলোচনা প্রসঙ্গে ওয়াশিংটন জানাচ্ছে, পুলওয়ামায় দোষীদের শাস্তি দেওয়াটা যে জরুরি, তা নিয়ে দু’দেশই একমত। সন্ত্রাস দমনের প্রশ্নে আগামী দিনেও ইসলামাবাদের উপর চাপ বজায় রাখবে আমেরিকা। সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে এবং ভারতীয় নাগরিক ও সরকারের পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস দিয়েছেন মার্কিন বিদেশসচিব।