• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ধর্ষণের শাস্তি, কঠোর ইমরান

Imran Khan
—ফাইল চিত্র।

ধর্ষণের মতো অপরাধে মৃত্যুদণ্ড কিংবা রাসায়নিকের প্রয়োগে অভিযুক্তের যৌন ক্ষমতা কেড়ে নেওয়াই একমাত্র কার্যকর সাজা। এমনটা হলেই একমাত্র ফের একই পথে পা বাড়ানো থেকে আটকানো যাবে যৌন অপরাধীদের— এমনটাই মত পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের। সম্প্রতি লাহৌরে এক মহিলার গণধর্ষণের ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তাল হয়ে ওঠে পাকিস্তান। সেই সূত্র ধরেই এক টিভি সাক্ষাৎকারে সোমবার এই মন্তব্য করেছেন ইমরান, যা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে।  

লাহৌরে আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে এক মহিলাকে গাড়ি থেকে টেনে নামিয়ে এনে তাঁর সন্তানদের সামনেই ধর্ষণ করে দুই দুষ্কৃতী। গত বুধবারের এই ঘটনায় উত্তেজনার আঁচ ছড়িয়ে পড়ে গোটা দেশে। শুরু হয় বিক্ষোভ প্রদর্শন। সোমবারই অভিযুক্তদের মধ্যে এক জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

ঘটনার প্রসঙ্গে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে সুর চড়ান ইমরানও। তাঁর মন্তব্য, ‘‘রাস্তার মোড়ে নিয়ে গিয়ে অভিযুক্তদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া উচিত।’’ ধর্ষণের মতো অপরাধের ক্ষেত্রে রাসায়নিকের প্রয়োগে অপরাধীর যৌন ক্ষমতা কেড়ে নেওয়াকে আইনি স্বীকৃতি দেওয়ার পক্ষে জোরাল সওয়াল করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী। তাঁর কথায়, ‘‘খুনের ক্ষেত্রে যেমন ‘ফার্স্ট, সেকেন্ড বা থার্ড’ ডিগ্রির নিরিখে অপরাধের বিচার হয়, ধর্ষণের ক্ষেত্রেও তেমনটাই হওয়া উচিত।’’ 

আরও পড়ুন: ফেসবুকে ভোটের খেলা’, বিস্ফোরক বহিষ্কৃত কর্মী​

আরও পড়ুন: ৫০ লক্ষে ভারত, তবু লকডাউনের গুণগান​

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন