সন্ত্রাস প্রশ্নে পাকিস্তানের উদ্দেশে ফের কড়া বার্তা দিলেন মার্কিন বিদেশসচিব মাইক পম্পেয়ো।

যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানে সাম্প্রতিক ভোটকে স্বাগত জানিয়ে পম্পেয়ো বলেন, ‘‘সন্ত্রাস রুখতে পাকিস্তান কড়া পদক্ষেপ না করলে এবং দেশের পশ্চিম সীমান্তে জঙ্গিদের নিরাপদ আশ্রয় দিলে পাকিস্তানকেই দায়ী করা হবে।’’

চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইসলামাবাদের বিরুদ্ধে জঙ্গিদের নিরাপদ আশ্রয় দেওয়ার অভিযোগ এনেছিলেন। সেই সঙ্গে এ-ও বলেছিলেন, ওয়াশিংটনকে ‘মিথ্যা ও প্রতারণা’ ছাড়া আর কিছুই দেয়নি পাকিস্তান। তার পরেই পাক-মার্কিন সম্পর্কের আরও অবনতি হয়।

এর পর পাকিস্তানের ইমরান খান সরকারের সঙ্গে নতুন করে সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টায় গত ৫ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে দেখা করেন পম্পেয়ো। তখনই পাক নেতাদের উদ্দেশে এই বার্তা দিয়ে এসেছিলেন তিনি। পাকিস্তানে পম্পেয়ো বারবার জোর দিয়ে বলেছেন, পাকিস্তানের মাটিতে আশ্রয় পাওয়া জঙ্গিগোষ্ঠীগুলিকে নিয়ন্ত্রণ করতে আরও একটু বেশি পদক্ষেপ করতে হবে। তার পরেও যদি পাকিস্তান সেই বিষয়ে নজর না দেয় এবং পদক্ষেপ না করে, তা হলে পাকিস্তানকেই দায়ী করা হবে।

গত কাল বিদেশ দফতরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে একটি প্রশ্নের উত্তরে পম্পেয়ো বলেন, ‘‘এটা সাফ জানিয়ে দিয়েছি যে, দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়ার সম্পর্কে আমাদের মার্কিন নীতি একেবারেই পরিবর্তন হয়নি। আর আমাদের আশা, দেশের পশ্চিম সীমান্তে জঙ্গিদের নিরাপদ আশ্রয় দেবে না পাকিস্তান।’’

সেই সঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘‘আফগানিস্তানে সব কিছু ঠিক হয়ে যাক— এটা সকলেই চান। আর সেটা হতে গেলে পাকিস্তানের ভিতর তালিবান, হক্কানি এবং অন্যান্য জঙ্গিগোষ্ঠীকে নিরাপদ আশ্রয় দেওয়া চলবে না। পাকিস্তান সরকার খুব ভাল করেই জানে আমাদের দৃষ্টিভঙ্গিটা। আর এ-ও জানে যে, তারা জঙ্গিদমনে পদক্ষেপ না করলে ট্রাম্প প্রশাসন কী করতে পারে। তাই আমাদের আশা, ট্রাম্প প্রশাসনের বেঁধে দেওয়া লক্ষ্য পূরণ করবে পাকিস্তান।’’