• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পার্সেল বোমারুর ‘বোমা’ যে টুইটারেও!

Cesar Altieri Sayoc
সিজ়ার আলিতেরি সেয়ক

মাথায় গুঁড়ি-গুঁড়ি ছাঁট। কালো হাতকাটা টি-শার্টের ফাঁক দিয়ে উপচে প়ড়ছে পেশি। গারদে, তবু নির্বিকার!

প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা-সহ প্রায় ১৩ জন ডেমোক্র্যাটের ঠিকানায় পার্সেল বোমা পাঠিয়ে আপাতত শ্রীঘরে বছর পঞ্চান্নর সিজ়ার আলিতেরি সেয়ক। গত কাল তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ তার নিজস্ব ভ্যান, সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট ঘাঁটতে গিয়ে চোখ কপালে উঠল তদন্তকারীদের— বোমা যে সর্বত্র! 

কলেজ-ছুট সেয়ক প্রথম জীবনে ছিল নগ্ন-নাচিয়ে। তার পরে অপরাধের দুনিয়া ঘুরতে-ঘুরতে শেষমেশ হয়ে উঠেছিল প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কট্টর সমর্থক। পুলিশের দাবি, ডেমোক্র্যাট দেখলেই মাথায় খুন চড়ে যেত সেয়কের। ফেসবুক-টুইটারে তাই শুধুই সে সব পোস্ট। কোথাও ‘মাই প্রেসিডেন্ট’ বলে ট্রাম্প-বন্দনা, তো কোথাও ওবামা-হিলারিদের মুণ্ডপাত! ট্রাম্প নিজে অবশ্য বলেছেন, ‘‘এমন লোকের জন্য কোনও জায়গা নেই।’’

গত কাল অবশ্য তদন্তকারীদের একাংশ দাবি করেন, খুনের ছক নয়, নেহাত ভয় দেখানোর জন্যই সে পার্সেল-বোমা পাঠাচ্ছিল ডেমোক্র্যাটদের। কাল আটক কিছু বোমার প্যাকেটে আঙুলের ছাপ ধরে ফ্লরিডা থেকে গ্রেফতার হয় সেয়ক।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, ১৯৯১ সালে চুরির অভিযোগে প্রথম জেলে ঢোকে সেয়ক। তখন বয়স ২৯। তার পর ২০০২-এ ফের বোমা বানানোয় জেল হয়। ইদানীং ফ্লরিডার এক পিৎজা রেস্তরাঁয় সে ডেলিভারি লরিচালকের কাজ করত। সোশ্যাল মিডিয়াতে নিজেকে গুটিয়েই রাখত। 

গত জুনে টুইটে ‘গ্রেটেস্ট কম্যান্ডার চিফ’ বলে ট্রাম্পকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছিল সেয়ক। তবে কয়েক মাস ধরে শুধু বাছাই করা ডেমোক্র্যাটদেরই নিশানা করতে দেখা গিয়েছে তাকে। পুলিশই তার প্রোফাইল ঘেঁটে বলছে, সমকামী, কৃষ্ণাঙ্গ আর ইহুদিদের চরম ঘৃণা করত সে। সুযোগ পেলেই সেয়ক বলে গিয়েছে— ২০২৪ পর্যন্ত হোয়াইট হাউসে থাকছেন ট্রাম্পই।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন