ব্যাটারি-বিপত্তিতে ফের নাম শিরোনামে আইফোন। অভিযোগ, অতিরিক্ত মাত্রায় গরম হয়ে ফেটে গিয়েছে আইফোনের ব্যাটারি। হাত পুড়ে গিয়েছে এক ব্যক্তির। অল্পবিস্তর আহত হয়েছেন আরও সাত জন। সুইৎজারল্যান্ডের জুরিখের ঘটনা। তবে বিষয়টি নিয়ে এখনও পর্যন্ত মুখ খোলেননি অ্যাপল কর্তৃপক্ষ।

সুইসইনফো ডট সিএইচ-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, মঙ্গলবার জুরিখের ব্যানহফস্ট্রাসে এলাকায় একটি আইফোন বিপণিতে ওই ঘটনা ঘটে। ‘আইফোন-৬ প্লাস’ মডেলের ওই ফোনটি সারানোর সময় সেটির ব্যাটারি খোলা হয়। ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে, ব্যাটারি খোলামাত্রই তা থেকে ঘন ধোঁয়া বেরোতে শুরু করে। এবং শেষমেশ সেটি ফেটে যায়। এতে জখম হয়েছেন ওই বিপণির এক ফোন মেরামতকারী। তাঁর হাতের খানিকটা পুড়ে গিয়েছে। তাঁকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সামান্য আহত হয়েছেন আরও সাত জন। তবে তাঁদের প্রত্যেককেই প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় জুরিখ পুলিশ ও দমকল বাহিনী। জুরিখ সিটি পুলিশ জানিয়েছে, ব্যাটারি থেকে ধোঁয়া বেরোনোর পর তার উপর কোয়ার্ৎজ স্যান্ড (সিলিকা) ছড়িয়ে সেটির তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে আনেন অ্যাপল স্টোরের কর্মীরাই। ঘটনার সময় ওই স্টোরে কেনাকাটা করছিলেন অনেকেই। ছিলেন অনেক কর্মীও। সব মিলিয়ে উপস্থিত প্রায় ৫০ জনকে দ্রুতই অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: প্রত্যাঘাত? আমেরিকাকে আর কোনও সহযোগিতা নয়: পাক প্রতিরক্ষা মন্ত্রী

আরও পড়ুন: কাঁপছে লাহুল-স্পিতি, এটিএম সচল রাখতে ‘গায়ে’ কম্বল, রুম হিটার!

এর আগেও আইফোনের ব্যাটারি ফেটে দুর্ঘটনা ঘটেছে। ২০১৫-র ফেব্রুয়ারিতে আমেরিকার লং আইল্যান্ডে এরিক জনসন নামে এক ব্যক্তির পকেটে রাখা আইফোন-৫সি মডেলটি হঠাৎ ফেটে যায়। তাতে পুড়ে যায় এরিকের পায়ের অনেকাংশ।

সম্পাদক অঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়ের লেখা আপনার ইনবক্সে পেতে চান? সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

জুরিখের ঘটনাটি খতিয়ে দেখতে তদন্তে নেমেছে জুরিখ ফরেন্সিক ইনস্টিটিউটের বিশেষজ্ঞরা। তবে বিষয়টি নিয়ে এখন পর্যন্ত কোনও বিবৃতি দেননি অ্যাপল কর্তৃপক্ষ।