• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রামধনু ছোঁয়ায় হোয়াইট হাউসও

1
ছবি: এএফপি।

অচলায়তন ভেঙে ডানা মেলেছে স্বাধীনতা আর সমানাধিকারের দাবি। সেই মুক্তির উদযাপনে সাতরঙা আলোয় সেজেছে হোয়াইট হাউস। আর হোয়াইট হাউসেরই মসনদ দখলের লড়াইয়ে নতুন ইন্ধন জোগাল মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের সাম্প্রতিকতম রায়।

আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের রিপাবলিকান প্রার্থী ববি জিন্দল দু’দিন আগেই বৈষম্যের অস্ত্রে আক্রমণ করেন বারাক ওবামাকে। বলেছিলেন, ‘‘প্রেসিডেন্ট ওবামা চিরকাল ভেদাভেদের রাজনীতি করেছেন..., লিঙ্গভেদ, জাতিভেদ, ধর্মভেদ আলাদা করেছেন তিনি।’’ জিন্দলের কথায় মনে হয়েছিল, সংখ্যালঘু ও বৈষম্যের রাজনীতি ভোট-অস্ত্র করবেন না তিনি।

কিন্তু পাশা উল্টে গেল গত কালের রায়ের পরেই। সুপ্রিম কোর্টের রায়ের তীব্র সমালোচনা করে জিন্দল বললেন, ‘‘নিজের ওপর নিয়ন্ত্রণ নেই সুপ্রিম কোর্টের। নিজের বিচারব্যবস্থা বলে কিছু নেই, জনমতই সুপ্রিম কোর্টের শেষ কথা হয়ে দাঁড়িয়েছে।’’ তাঁর আরও বক্তব্য, ‘‘নারী ও পুরুষের বিয়ের প্রতিষ্ঠানটি স্বয়ং ঈশ্বর সৃষ্টি করেছেন। বিশ্বের কোনও আদালতে সেটা বদলে ফেলা যায় না।’’

গদির লড়াইয়ে বারবার বিদ্ধ হয়েছে সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্ত। আর সেই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েই দিনভর দেশ জুড়ে উড়েছে হাজারো রামধনু। পালিত হয়েছে ‘প্রাইড অব সেলিব্রেশন’। গর্বের মুহূর্ত উদযাপনে  সাতরঙা পতাকা উড়িয়ে, সাতরঙা পোশাকে সেজে ফিলিপিন্সের রাজধানী ম্যানিলায় কয়েকশো এলজিবিটি কর্মী পা মিলিয়েছেন ‘প্রাইড র‌্যালিতে’। অনেকের হাতে ধরা প্ল্যাকার্ডে ডাক যুদ্ধ ঘোষণার। ভালবাসার যুদ্ধ। ‘ফাইট ফর লাভ’। ফিলিপিন্সের এলজিবিটি সংগঠনের এক মুখপাত্র জোন্স বাগাস বললেন, ‘‘বিশ্বের প্রতিটি কোণে প্রতিধ্বনিত হচ্ছে আমাদের ভালবাসার দাবি।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন