বিদেশে সমস্যায় পড়ে কেউ সুষমা স্বরাজের সাহায্য চেয়েছেন, অথচ পাননি এমন লোক হয়তো খুঁজে পাওয়া যাবে না। এ বার বাংলাদেশ থেকে এক কাশ্মীরি ছাত্রীর মৃতদেহ দেশে ফেরাতে উদ্যোগী হয়েছেন বিদেশমন্ত্রী। আজ টুইট করে সুষমা জানিয়েছেন, ওই ছাত্রীর মৃতদেহ দ্রুত দেশে ফেরানোর ব্যবস্থা হবে। 

কাশ্মীরের অনন্তনাগের বাসিন্দা কুয়ারাতুল ঐইন বাংলাদেশের তাহির-উল-নিসা মেডিক্যাল কলেজের এমবিবিএসের ছাত্রী। গত কাল বাংলাদেশেই মারা যান তিনি। জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতি প্রথম বিষয়টি নিয়ে বিদেশমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। সুষমার উদ্দেশে তাঁর টুইট, ‘‘কাশ্মীরি ছাত্রী কুয়ারাতুল ঐইন বাংলাদেশে মারা গিয়েছেন। তিনি তাহির-উল-নিসা মেডিক্যাল কলেজের পড়ুয়া। আপনাকে আমার অনুরোধ, ওই ছাত্রীর মরদেহ দেশে ফেরাতে পরিবারকে সাহায্য করুন।’’ বিদেশমন্ত্রীকে একই আবেদন করেন জম্মু-কাশ্মীরের আর এক প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা ওমর আবদুল্লাও। তাঁর কাছে সাহায্য চেয়ে আর্জি জানিয়েছিল, অনন্তনাগের জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন। সুষমার উদ্দেশে করা টুইটে ওই আবেদন পত্রটির ছবিও জুড়ে দিয়েছেন ওমর।

এর পরই আজ সকালে টুইট করে সুষমা জানান, ওই এমবিবিএস ছাত্রীর পরিবারের সঙ্গে ঢাকায় অবস্থিত ভারতীয় হাইকমিশন যোগাযোগ রাখছে। তিনি লিখেছেন, ‘‘ওই ছাত্রীর ভাইয়ের সঙ্গে গত কাল আমার কথা হয়েছে। ছাত্রীর মরদেহ দ্রুত দেশে ফেরানো হবে।’’ ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনও জানিয়েছে, দফতরের আধিকারিকেরা কুয়ারাতুলের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। কথা চলছে শেখ হাসিনা সরকারের সঙ্গেও।

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯