আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জন্য কোমর বেঁধে নামছে বিরোধী ডেমোক্র্যাট শিবির। পরিস্থিতি যে বেশ জটিল, তা মেনে নিচ্ছেন রিপাবলিকানরাও। তবে প্রেডিসেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প  আদৌ ২০২০ সালের নির্বাচন পর্যন্ত ‘মুক্ত’ থাকবেন কি না, এর মধ্যেই ডেমোক্র্যাট সেনেটর এলিজ়াবেথ ওয়ারেন প্রশ্ন তুলে দিলেন। তাঁর সাফ কথা, ‘‘যখন ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হবে, তত দিন পর্যন্ত ডোনাল্ড ট্রাম্প হয়তো প্রেসিডেন্টই থাকবেন না!’’

কিছু দিন আগেই প্রেসিডেন্ট-নির্বাচনের লড়াইয়ে নামছেন বলে ঘোষণা করেছেন ম্যাসাচুসেটসের এই সেনেটর। প্রথম কয়েক দিনের প্রচারে সরাসরি মার্কিন প্রেসিডেন্টের নাম তেমন ভাবে নেননি এলিজ়াবেথ। তবে গত কাল আইয়োয়া-র এক সভায় চাঁচাছোলা ভাষায় ট্রাম্পকে আক্রমণ করেছেন তিনি। ইঙ্গিত দিয়েছেন, যে ভাবে ট্রাম্প আর তাঁর ঘনিষ্ঠদের নাম একের পর এক দুর্নীতিতে জড়াচ্ছে, তাতে আর বেশি দিন মুক্ত অবস্থায় ঘুরতেই পারবেন না প্রেসিডেন্ট। জেলে বন্দি হয়ে থাকতে হবে তাঁকে। এলিজ়াবেথের কথায়, ‘‘প্রেসিডেন্টের পুরো দায়িত্বটাও পালন করতে পারবেন না ট্রাম্প।’’ গত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপ নিয়ে বিশেষ আইনজীবী রবার্ট মুলারের তদন্তে যে ভাবে ট্রাম্প বাধা দিয়েছেন, সেই প্রসঙ্গও তুলেছেন এলিজ়াবেথ। গত মাসে ট্রাম্প ঘনিষ্ঠ রজার স্টোনকে দোষী সাব্যস্ত করেছেন মুলার। এর আগে আরও ছয় ট্রাম্প-ঘনিষ্ঠ ব্যক্তিকে কাঠগড়ায় তুলেছেন তিনি। যদিও মুলারের তদন্ত প্রক্রিয়াকে ‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার উপায়’ বলে অভিহিত করেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।