বারান্দার রেলিংয়ে বিপজ্জনক অবস্থায় ঝুলছে তিন বছরের শিশু। ঠিক তখনই ওই বহুতলের পাশ দিয়ে যাচ্ছিলেন দু’জন। এমন দৃশ্য দেখা মাত্র বিপদের তোয়াক্কা না করে বহুতলে চড়তে শুরু করেন দু’জন। শিশুটিকে বাঁচিয়ে এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় হিরোর মর্যাদা পাচ্ছেন দু’জন, পেশায় এঁদের এক জন ক্যুরিয়ার সার্ভিসের ডেলিভারি বয়। অন্য জন ছোট ব্যবসায়ী।

সম্প্রতি সামনে এসেছে এমনই এক ভিডিয়ো। আর সোশ্যাল মিডিয়ায় আসা মাত্রই তা ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। ঘটনাটি চিনের জিয়াংশু প্রদেশের চাঙ্গশু শহরের। বহুতলের চার তলার বারান্দার রেলিংয়ে ঝুলছিল ওই তিন বছরের শিশু। এমন বিপজ্জনক অবস্থায় শিশুটিকে দেখামাত্রই জানলা বেয়ে তর তর করে উঠে ওই শিশুর কাছে পৌঁছে যান ওই দুই ব্যক্তি। গোটা ঘটনাটি ধরা পড়েছে এলাকার সিসিটিভিতে।

এক প্রত্যক্ষদর্শীর কথায়, ‘‘শুক্রবার সকাল ১০টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে। আমি দেখলাম, বাচ্চাটি কোনও রকমে বারান্দার রেলিং ধরে ঝুলছে। হঠাত্ই এক জনকে দেখলাম বাইক থামিয়ে তর তর করে ওই বহুতলের জানলা বেয়ে উঠে গেলেন। বাচ্চাটি বাড়িতে একা ঘুমাচ্ছিল। ঘুম থেকে ওঠার পরেই কাউকে দেখতে না পেয়ে ভয় পেয়ে যায়। আর তার পরেই জানলা খুলে আস্তে আস্তে রেলিংয়ের দিকে চলে আসে।’’ 

ঝুঁকি নিয়ে কী ভাবে ওই দু’জনে বাচ্চাটিকে বাঁচালেন দেখে নিন

 

 

ওই দু’জনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন শিশুটির বাবা। তাঁর কথায়, ‘‘সুপারহিরোর মতোই ওঁরা দু’জন আমার বাচ্চার জীবন বাঁচিয়েছেন। সত্যিই ওঁদের দু’জনের জন্যও অত উঁচুতে উঠে আমার মেয়েকে উদ্ধার করাটাও দুষ্কর ছিল।’’

আরও পড়ুন: কুঁড়েমিতে প্রথম কুয়েত, ভারত কত নম্বরে জানেন?

আরও পড়ুন: একসময়ের কুখ্যাত গ্যাংস্টার, এখন নুডলস বিলি করেন গরিবদের

(সারা বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা নিয়ে বাংলায় খবর পেতে চোখ রাখুন আমাদের আন্তর্জাতিক বিভাগে।)